২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

অজিদের হারিয়ে প্রথমবারের মতো সিরিজ জিতে নিলো বাংলাদেশ

- Advertisement -

অস্ট্রেলিয়াকে ১০ রানে হারিয়ে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিলো বাংলাদেশ। অজিদের বিপক্ষে এটাই টাইগারদের প্রথম সিরিজ জয়। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।

শুরুতেই ম্যাথু ওয়েডকে ফিরানোর পর বাংলাদেশের উদযাপন

শুক্রবার ১২৮ রানের লক্ষ্যে অজিদের হয়ে ইনিংসের সূচনা করতে নামেন ম্যাথু ওয়েড এবং বেন ম্যাকডারমট। বোলিংয়ে শেখ মাহেদি হাসান। পঞ্চম বলেই মাহেদিকে ছক্কা হাঁকিয়ে বসেন ম্যাকডারমট। কিন্তু শুরুটা বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি অজিরা। পরের ওভারেই ওয়েডকে ফিরান প্রথম ম্যাচে জয়ের নায়ক নাসুম আহমেদ। নাসুম আহমেদের শর্টপিচ ডেলিভারিটাকে পুল করতে গিয়ে শর্ট ফাইন লেগে দাড়িয়ে থাকা শরিফুলের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ওয়েড। পাওয়ারপ্লের ছয় ওভার শেষে অজিদের সংগ্রহ ২০ রান, উইকেট একটিই।

দশম ওভারে বোলিংয়ে শরিফুল। চতুর্থ বলে পুল করে চার হাঁকালেন মিচেল মার্শ, পরের বলটা খেলতে অসুবিধে হলো একটু। তাতেই শরিফুল দিলেন খোটা, মার্শের সাথে শরিফুলের কথার লড়াই জমিয়ে দিতে এবার উইকেটরক্ষক সোহানের সাথে এগিয়ে এলেন অধিনায়ক রিয়াদও। চিরদিন কথার লড়াইয়ে এগিয়ে থাকা অজিদের চোখে যেভাবে চোখ রেখে কথা বললেন রিয়াদ, এমনটা তো চিরদিন অজিদেরই করতে দেখা গেছে।  ১০ ওভার শেষে ৫৪/১।

মার্শের বিদায়ের পর প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি আর কেউই

১৩তম ওভারে মুস্তাফিজের করা প্রথম বলেই ফাইন লেগে শরিফুলের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ৩২ রানে ব্যাট করতে থাকা ম্যাকডারমট। ম্যাকডারমটের সহজ ক্যাচটা লুফে নিতে ব্যর্থ হন শরিফুল। কিন্তু, বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি তিনিও। পরের ওভারেই সাকিবের আর্ম বলে বোল্ড হয়ে ড্রেসিং রুমে ফিরে গেছেন ব্যক্তিগত ৩৫ রানে। ১৫তম ওভারেই প্রথম বলেই শরিফুলের বলে শামিমকে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফিরেছেন মইজেস হেনরিকসও। ১৫ ওভার শেষে অজিদের সংগ্রহ ৮০/৩। শেষ ৩০ বলে জয়ের জন্য প্রয়োজন ৪৮ রান।

অজিদের জয়ের ভরসা হয়ে থাকা মিচেল মার্শ

১৮তম ওভারের প্রথম বলেই মার্শকে প্যাভিলিয়নে ফিরান শরিফুল। ব্যক্তিগত ৫২ রানে মিড অফে দাড়ানো নাইমের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ড্রেসিং রুমে ফিরে গেছেন মার্শ। এরপর অ্যালেক্স ক্যারি চেষ্টা করলেও দলকে নিয়ে যেতে পারেনি জয়ের দ্বারপ্রান্তে। অজিদের হয়ে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেছেন মিচেল মার্শ। বাংলাদেশের হয়ে ২ টি উইকেট পেয়েছেন শরিফুল। কিন্তু, মুস্তাফিজ ছিলেন অবিশ্বাস্য। চার ওভারে কোনো উইকেট না পেলেও ফিজ দিয়েছেন ৯ রান। এরমধ্যে শেষ দুই ওভারে দিয়েছেন মাত্র ২ রান।

দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেছেন রিয়াদ

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করবার সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ।  প্রথম ইনিংস শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ১২৭ রান। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেছেন অধিনায়ক রিয়াদ, সাকিব খেলেছেন ২৬ রানের এক কার্যকরি ইনিংস। বাংলাদেশের ইনিংসের শেষ তিন বলে তিনটি উইকেট নিয়ে অভিষেকেই হ্যাটট্রিক করেছেন নাথান এলিস।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img