NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার

অনেক প্রথমের দিনে আফগানিস্তানের রানের পাহাড়

- Advertisement -

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে দশ উইকেট হেরেছিল আফগানিস্তান, দ্বিতীয় টেস্টে তাদের প্রত্যাবর্তন হবে এতটাই শক্তশালী, কে ভেবেছিল! প্রথম ইনিংসে আফগানরা ইনিংস ঘোষণা করে ৪ উইকেটে ৫৪৫ রান নিয়ে।  যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটার সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ; দিনশেষে কোনো উইকেট না হারিয়ে জিম্বাবুয়ে তুলেছে ৫০ রান।

শুধু দলগত না, একাধিক অনেক ব্যক্তিগত মাইলফলকের সাক্ষী সংযুক্ত আরব আমিরাতে চলমান আফগানিস্তান-জিম্বাবুয়ে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট। চতুর্থ উইকেটে অধিনায়ক আসগর আফগানের সঙ্গে হাসমতউল্লাহ শাহীদির ৩০৭ রানের জুটি, আফগান ইতিহাসের সর্বোচ্চ। অধিনায়ক আসগর আফগান আউট হয়েছেন ১৬৪ রানে, সিকান্দার রাজার বলে। অধিনায়ক হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে চতুর্থ সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত স্কোর; দেশের হয়ে প্রথম দেড়শ বা এর বেশি রানের ইনিংসও তার।

স্বপ্ন ছোঁয়ার আনন্দ

আলো ছড়িয়েছেন আসগর আফগান, তবে ওই আলো ছড়ানোর খেলায় সবাইকে ছাড়িয়ে হাসমতউল্লাহ শাহিদি। আফগান ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম দ্বিশতক, দেশটার ষষ্ঠ টেস্টে।  ম্যাচ সংখ্যায় এতো কম টেস্টে ব্যক্তিগত দ্বিশতকের দেখা পায়নি কোনো দল। আফগানিস্তানের যেখানে লেগেছে ৬ টেস্ট, বাংলাদেশের ৭৬।

প্রথম দিনে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আফগানিস্তান। দলীয় ৬ রানেই প্রথম উইকেটের পতন, ১২১ রান তুলে আফগানিস্তান হারিয়েছিল ৩ উইকেট। পরের সময়টা শুধুই আসগর আফগান এবং হাসমতউল্লাহ শাহিদির।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: আফগানিস্তান (১ম ইনিংস):  ৫৪৫/৪ (ডিক্লে.) (হাশমতউল্লাহ ২০০*, আসগর ১৬৪, নাসির ৫৫*; রাজা ৩১-৪-৭৯-১, বার্ল ২০-১-৬৯-১ নিয়াউচি ২৪-৪-১০২-১)।

জিম্বাবুয়ে (১ম ইনিংস):  ৫০/০ (মাসভাউরে ২৯*, কাসুজা ১৪*; শিরজাদ ৪-০-১১-০, হামজা ৮-০-১৮-০, রশিদ খান ৫-১-১৫-০)।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img