৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার

অলিম্পিকের অংশ হবার পথে ক্রিকেট

- Advertisement -

অবশেষে অলিম্পিকেও যুক্ত হতে চলেছে ক্রিকেট। আন্তর্জাতিক ত্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তির জন্য বিড করবার ইচ্ছে প্রকাশ করেছে। এজন্য আইসিসি একটা ওয়ার্কিং গ্রুপ ডেকেছে যারা অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তির জন্য বিডে নেতৃত্ব দিবে, যাতে ২০২৮ লস অ্যান্জেলেস অলিম্পিক থেকেই ক্রিকেট অলিম্পিকের অংশে পরিণত হতে পারে।

ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) প্রধান ইয়ান ওয়াটমোর আইসিসি অলিম্পিক ওয়ার্কিং গ্রুপের সভাপতিত্ব করবেন এবং তার সঙ্গে যোগ দেবেন আইসিসির স্বতন্ত্র পরিচালক ইন্দ্র নুই, জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের প্রধান তাভেংওয়া মুকুহলানি, আইসিসির সহযোগী সদস্য পরিচালক এবং এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা ভল্লিপুরম এবং যুক্তরাষ্ট্র  ক্রিকেট প্রধান পরাগ মারাঠে। কমিটিতে মারাঠের অন্তর্ভুক্তি একটি কৌশলগত সিদ্ধান্ত ছিল কারণ, ২০২৮ অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে লস এঞ্জেলেসে।

আইসিসির চেয়ারম্যান গ্রেগ বার্কলে এই নিয়ে বিস্তর কথা বলেছেন। তিনি জানিয়েছেন, অলিম্পিকে ক্রিকেটের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে তারা কতটা উত্তেজিত। সেইসাথে ধন্যবাদ জানিয়েছেন টোকিও অলিম্পিকের আয়োজকদের।

“প্রথমে আইসিসির প্রত্যেকের পক্ষ থেকে আমি আইওসি, টোকিও ২০২০ এবং জাপানের জনগণকে এরকম কঠিন পরিস্থিতিতে এমন অবিশ্বাস্য গেমস আয়োজনের জন্য অভিনন্দন জানাতে চাই। এটা দারুণ ছিল, সেইসাথে পুরো বিশ্বের জন্যই ভীষণ সুন্দর এক কল্পনা। আমরা খুব খুশি হবো যদি ভবিষ্যতে ক্রিকেটকেও অলিম্পিকের অন্তর্ভুক্ত করা হয়”

“আমরা অলিম্পিককে ক্রিকেটের দীর্ঘমেয়াদী ভবিষ্যতের অংশ হিসেবে দেখছি। বিশ্বব্যাপী আমাদের এক বিলিয়নেরও বেশি ভক্ত রয়েছে এবং তাদের মধ্যে ৯০ শতাংশই চায় ক্রিকেটকে অলিম্পিকের অংশ হতে দেখতে। আমরা মনে করি এটাই সেই সময়, যখন আমরা ক্রিকেটকে অলিম্পিকের অংশ বানানোর জন্য চেষ্টা করতে পারি”

সেইসাথে আইসিসির চেয়ারম্যান এটাও মনে করিয়ে দিয়েছেন কাজটা যে খুব বেশি সহজ হবেনা তাদের জন্যও।

“আমরা বিশ্বাস করি ক্রিকেট অলিম্পিক গেমসের জন্য একটি দুর্দান্ত সংযোজন হবে। কিন্তু, আমরা জানি আমাদের অন্তর্ভুক্তিকে সুরক্ষিত করা এতটাও সহজ হবে না। কারণ, এখানে আরও অনেক চমৎকার খেলা রয়েছে”

শেষঅব্দি আইসিসি ক্রিকেটকে অলিম্পিকের অংশ করতে সফল হয় কি না, তা তো সময়ই বলে দিবে। কিন্তু এমন উদ্যোগের জন্য তো প্রসংসা পেতেই পারে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। ক্রিকেট অলিম্পিকের অংশ হতে পারলে সেটা যে বিশ্ব ক্রিকেটের জন্যই খুশির সংবাদ।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img