১ মার্চ ২০২৪, শুক্রবার

আইপিএলের নিলামে মুস্তাফিজের সঙ্গী তাসকিন-শরীফুল

- Advertisement -

সোমবার যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সাকিব আল হাসানকে সংবর্ধনা দিয়েছে। সেই অনুষ্ঠানে এক বক্তৃতায় সাকিব জানিয়েছেন, স্বেচ্ছায় এবারের আইপিএলের নিলামে নাম দেননি তিনি; শুধু তাই না, পিএসএল ড্রাফট থেকেও তাঁর ম্যানেজারকে নাম সরিয়ে নিতে বলেছেন।

আইপিএলে সাকিব শো দেখা না গেলেও; টাইগারদের পেস আক্রমণের সামনের সারির তিনজন, মুস্তাফিজ-তাসকিন এবং শরীফুল ইসলামকে আইপিএলে দেখা যেতে পারে। ১৯ ডিসেম্বরের নিলামে বাংলাদেশ থেকে উঠবেন এই তিনজন।

আগের কয়েক মৌসুম দিল্লি ক্যাপিটালসের হয়ে খেলা মুস্তাফিজকে এবার ছেড়ে দিয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজিটি, কিন্তু নিলামে মুস্তা সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকের ক্যাটাগরিতেই আছেন; অর্থাৎ মুস্তার ভিত্তিমূল্য ২ কোটি রূপী। তাসকিন আহমেদের ভিত্তিমূল্য ৭৫ লক্ষ রূপী, শরীফুলের ৫০ লক্ষ রূপী। এবারের নিলাম হবে দুবাইয়ে, যা প্রথমবারের মতো ভারতের বাইরে হচ্ছে।

২০১১ সাল থেকে ২০১৫ পর্যন্ত সাকিব আল হাসান ছিলেন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি। ২০১৬ থেকে ২০১৯, এই চার মৌসুম সাকিবের সঙ্গী ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান। ২০২০ আসরে নিষেধাজ্ঞার জন্য সাকিব ছিলেন না, দুটো ফ্র্যাঞ্চাইজি থেকে ডাক পাওয়া মুস্তাফিজও যেতে পারেননি বোর্ড থেকে এনওসি না পাওয়ায়।

পরের মৌসুমে এই দুজনই আবারও টাইগারদের প্রতিনিধি হিসেবে ছিলেন বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্টে। পরের আসরে সাকিবকে কোনো দলই কেনেনি; বাংলাদেশ থেকে মুস্তা একা আইপিএল খেলেন। তার পরের মৌসুম অর্থাৎ সবশেষ আসরেও মুস্তাফিজকে ধরে রেখেছিল দিল্লি; নিলাম থেকে সাকিব ও লিটন দাশকে কিনে নেয় কলকাতা নাইট রাইডার্স। লিটন একটা মাত্র ম্যাচ মাঠে নামার সুযোগ পেলেও, সাকিব খেলতেই যাননি! আইপিএল থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেন।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img