NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৮ আগস্ট ২০২২, বৃহস্পতিবার

আট আইসিসি ইভেন্টের ছয়টাই আয়োজন করতে আগ্রহী বিসিবি

- Advertisement -

আট বছরে ছয়টি আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বিসিবি অফিশিয়ালি কিছু না বললেও, শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) একটি সুত্র অলরাউন্ডারকে নিশ্চিত করেছেন; দুটি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির (২০২৫ এবং ২০২৯) একক আয়োজক হবার ইচ্ছা প্রকাশ করা বাংলাদেশকে সাথে নিয়ে চারটি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য আইসিসিকে জানিয়েছে শ্রীলঙ্কা এবং পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড।

২০২৫ এবং ২০২৯ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি একক আয়োজনে আগ্রহী বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে ওয়ার্ল্ড টি-২০ এবং ওয়ানডে বিশ্বকাপের মতো মেগা ইভেন্ট আয়োজনের মতো পর্যাপ্ত অবকাঠামো বাংলাদেশের না থাকায়, বিসিবিকে নিয়েই ওই আসারগুলো যৌথভাবে আয়োজন করতে চায় শ্রীলংকা এবং পাকিস্তান। সূত্র জানিয়েছে, ২০২৭ এবং ২০৩১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ বাংলাদেশকে নিয়েই আয়োজনের আগ্রহ দেখিয়েছে শ্রীলঙ্কা এবং পাকিস্তান। একইভাবে ২০২৬ এবং ২০২৮ টি-২০ বিশ্বকাপের কো-হোস্ট হতেও বাংলাদেশকে নিয়েই আবেদন করেছে এসএলসি। শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সূত্র আরও জানিয়েছে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সর্ব্বোচ্চ পর্যায়ের সাথে দফায় দফায় আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্তগুলো নেয়া হয়েছে। যেহেতু ভারত সবকিছুই এককভাবে করতে আগ্রহী, সে কারণে অনেকটা বাধ্য হয়েই বাংলাদেশকে সাথে নিয়ে আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের দাবী জানিয়েছেন শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান।

২০২৩-২০৩১; এই আট বছরে আইসিসি আয়োজন করবে পুরুষদের ৮টি বৈশ্বিক আসর। যার ছয়টিতেই আয়োজক হবার ইচ্ছা আইসিসিকে জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এই সার্কেলের অংশ দুটি করে ওয়ানডে বিশ্বকাপ এবং আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি। সঙ্গে ঐ আট বছরে আইসিসি আয়োজন করবে চারটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। প্রাথমিকভাবে এককভাবে দুইটি এবং যৌথভাবে আরো চারটি ইভেন্ট আয়োজনের আগ্রহ দেখিয়ে আইসিসিতে চিঠি পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। বিসিবির এই আগ্রহের কথা অফিশিয়াল মেইলেই জানিয়েছে আইসিসি। আফগানিস্তান ছাড়া টেস্ট খেলুড়ে সবদেশই ইভেন্টের আয়োজক হবার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। এমনকি আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের ইচ্ছা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ক্রিকেট বোর্ড।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img