NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
৮ আগস্ট ২০২২, সোমবার

আভিশকা ফার্নান্দোতে ম্লান ‘অলরাউন্ডার সৌম্য’; বাংলাদেশের হার চার উইকেটে

- Advertisement -

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশনে শুভ সূচনাটা করতে পারলো না বাংলাদেশ দল। প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪ উইকেটে হেরেছে টাইগাররা। ৬২ রানে অপরাজিত থেকে শ্রীলঙ্কাকে জয়টা এনে দিয়েছেন আভিশকা ফার্নান্দো। বাংলাদেশের হয়ে ব্যাটিংয়ে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেছেন সৌম্য সরকার; বল হাতে নিয়েছেন ২টি উইকেট।

দলের সাথে থাকলেও একাদশে ছিলেন না ফিজ

টসে জিতে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে স্কোরবোর্ডে ১৪৭ রান তুলে টাইগাররা। একপ্রান্ত আগলে রেখে বাংলাদেশের ইনিংসটাকে এগিয়ে নেয়ার কাজটা করেছেন সৌম্য সরকার। তার ব্যাট থেকে এসেছে দলীয় সর্বোচ্চ ৩৪ রান; এক চার এবং দুই ছয়ের ইনিংসটাকে সৌম্যের রানে ফেরার ইঙ্গিতও ভাবছেন অনেকে। ইনিংসের শেষ দিকে ১৬ রানের ছোট কিন্তু কার্যকরী ইনিংস খেলেছেন শেখ মাহেদি; ১৬ রান করেছেন টাইগার অধিনায়ক লিটন দাসও। শ্রীলঙ্কার হয়ে ৩টি উইকেট নেন দুশমন্থ চামিরা।

লিটনের আউট

১৪৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে নাসুম আহমেদের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ১৩ রান নিয়ে ভালো শুরুর আশাই দেখাচ্ছিলো শ্রীলঙ্কার দুই ওপেনার পাথুম নিসানকা-কুশল পেরেরা। কিন্তু, দুর্দান্ত তাসকিন আহমেদে ছন্দপতন; দলীয় ১৮ রানে তাসকিনের বলে নাইমের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নে কুশল। তাতে কি! নিসানকা যে আজ শপথ করেছেন আক্রমণাত্মক খেলার। পরের ওভারে আবারও নাসুম; এবার এল ১১ রান।

কিন্তু, নিসানকাকে বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে দেননি শেখ মাহেদি; নিজের প্রথম ওভারে বোলিং করতে এসে প্রথম বলেই এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলেছেন দুই ছক্কা হাঁকানো এই ব্যাটসম্যানকে। দ্রুতই দুই উইকেট হারিয়ে বিপর্যস্ত লঙ্কানদের ঘুরে দাড়ানোর চেষ্টাটা আভিশকা ফার্নান্দোকে নিয়ে দেখিয়েছেন দীনেশ চান্দিমাল। পাওয়ারপ্লের ছয় ওভার শেষেও তাই সংগ্রহটা ২ উইকেটে ৪৫।

এই মাঠেই খেলা হয়েছে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার

কিন্তু, বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি চান্দিমালও। সৌম্য সরকারের বলে বোল্ড হয়ে ১৩ রান করেই ড্রেসিং রুমে ফিরেছেন লঙ্কান ব্যাটসম্যান। সৌম্যের পরের ওভারেই উইকেট পড়েছে আরো দুইটি; ব্যক্তিগত ৭ রানে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, কোনো রান না করেই সৌম্যের এলবিডব্লিউয়ের শিকার ভানুকা রাজাপাকসে। পরের ওভারেই দাসুন শানাকাকে শরিফুল ইসলাম ড্রেসিংরুমে ফিরালেও টাইগারদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে পিচে ছিল ফার্নান্দো। চামিকা করুণারত্নেকে নিয়ে গড়েছেন ৭৩ রানের জুটি। আর তাতেই এসেছে চার উইকেটের জয়। ৪২ বলে ৬২ রান করেছেন আভিশকা; চামিকার সংগ্রহ ৩০। তিন ওভারে মাত্র চার দেয়া তাসকিন ১৮তম ওভারে বল করতে এসে, নিজের শেষ ওভারে দিয়েছেন ২১ রান!

 

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img