৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার

ইউরো তে দারুন শুরু রোনালদো ও পর্তুগালের

- Advertisement -

১০ মিনিটের ঝড়ে ইউরোতে বড় জয়ে মিশন শুরু পর্তুগালের। ৮৪,৮৭ এবং ৯২ মিনিটে গোল দেয়  পর্তুগাল। যদিও স্কোরলাইন দেখে বোঝার উপায় নেই ম্যাচের বাকি সময় পর্তুগালের সমানে সমান লড়াই করেছে হাঙ্গেরি। ম্যাচে দুই গোল পেয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

ইউয়েফা ইউরো২০২০ গ্রুপ “এফ” এর ম্যাচে মঙ্গলবার হাঙ্গেরি নিজেদের মাঠ বুদাপেস্টের পুসকাস এরেনায় ইউরোর বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল কে আতিথ্য দেয়। দর্শক ভরা মাঠে শুরুতে দুদল কিছুটা এলোমেলো ফুটবল খেলতে থাকে। ২৬ মিনিটে রোনালদোর বাড়িয়ে দেয়া বল বক্সের ভেতর ম্যান সিটি মিডফিল্ডার বার্নাডো সিল্ভার পায়ে গেলেও তিনি রাখতে পারেন নি। এন্দ্রে বোতকার ট্যাকেলে সিলভা বক্সে পড়ে গেলে, পর্তুগালের পেনাল্টির আবেদন নাকচ করে দেন রেফারি। হাঙ্গেরির সামনে বড় সুযোগ আসে ম্যাচের ৩৬ মিনিটে। আন্দ্রেস স্ক্যাফেরের ফ্রি কিক থেকে অধিনায়ক এডাম শালাই এর হেড সরাসরি পর্তুগিজ গোলকিপারের হাতে যায়। তবে, প্রথমার্ধের শেষের দিকে সবচেয়ে সহজ সুযোগ পান ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ৪৩ মিনিটে দিয়েগো জোতার লো ক্রস ফাঁকায় থাকা রোনালদোর পায়ে গেলে বল গোল বারের ওপর দিয়ে মারেন পর্তুগিজ অধিনায়ক। ফলে কোনো গোল ছাড়াই টানেলে ফেরে দুদল।

সেকেন্ড হাফের শুরু থেকে একের পর এক আক্রমন শানতে থাকে দুদল। বিরতির পর খেলা শুরুর দুই মিনিটেই ব্রুনো ফার্নান্দেজের কর্নার থেকে পর্তুগিজ ডিফেন্ডার পেপের হেড ফিরিয়ে দেন হাঙ্গেরির গোলকিপার পিটার শুলাকসি। ৬৭ মিনিটে ম্যান ইউ মিডফিল্ডার ব্রুনো ফার্নান্দেজ নিজেই দুরপাল্লার শট নেন হাঙ্গেরির গোলে; এবারও আরবি লাইপজিগ গোলকিপার পিটার শুলাকসির দারুন সেভে গোল পাননি তিনি। ৭৮ মিনিটে মাঠে নেমে ৮০ মিনিটেই হাঙ্গেরি কে গোলের আনন্দে ভাসান মিডফিল্ডার ডেভিড সিজার, অফসাইডে বাতিল হয় সেই গোল।  উলটা ম্যাচের ৮৩ মিনিটে লেফট ব্যাক রাফায়েল গুরেরিওর গোলে ম্যাচে লিড পায় পর্তুগাল। উইলি ওরবানের শরীরে লেগে বলের দিক পরিবর্তিত হয়ে প্রথম গোল খায় হাঙ্গেরি। দুই মিনিট পর বক্সের ভিতর ফাউল করে বসেন উইলি ওরবান। ৮৭ মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি থেকে টুর্নামেন্টে গোলের খাতা খোলেন সিআর-সেভেন। অতিরিক্ত সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে রাফা সিল্ভার ক্রস থেকে ম্যাচে নিজের দুই নম্বর গোল পান ইউভেন্তাস ফরোয়ার্ড রোনালদো। এদিন ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোল স্কোরার হওয়ার রেকর্ডও নিজের নামে করে নেন সময়ের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার। নির্ধারিত সময়ের শেষে ০-৩ গোলের বড় ব্যাবধানে ম্যাচ জিতে নেয় পর্তুগাল।

গ্রুপ অব ডেথ নাম পাওয়া এই গ্রুপে ৩ ইউরো চ্যাম্পিয়ন দলের ভিড়ে কাগজে কলমে সবচেয়ে দুর্বল দল হাঙ্গেরি। তবে নিজেদের মাঠে ম্যাচের শেষ ১০ মিনিট পর্যন্ত দারুন দক্ষতায় পর্তুগাল কে ঠেকিয়ে রাখে ম্যানেজার মার্কো রসির দল। হাঙ্গেরি বার্তা দিয়ে রাখলো গ্রুপের কোনো দলকেই সহজে পার পেতে দিবেনা তারা।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img