৭ অক্টোবর ২০২২, শুক্রবার

ইউরোতে করোনা আতংক! দুই ইংলিশ ফুটবলার আইসোলেশনে

- Advertisement -

বাংলাদেশ সময় বুধবার রাতে গুরুত্বপূর্ন ম্যাচে চেক রিপাবলিকের বিরুদ্ধে নামার আগে ইংল্যান্ড শিবির রয়েছে কোভিড১৯ অস্বস্তিতে। মিডফিল্ডার মেসন মাউন্ট ও ডিফেন্ডার বেন চিলওয়েলকে রাখা হয়েছে বাধ্যতামূলক আইসোলেশনে।

১৯ জুন ঘরের মাঠ ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে নেমেছিল ইংল্যান্ড। ইংলিশরা ম্যাচে জিততে পারেনি বরং ওই ম্যাচের ঘটনায় পরেছে আরও বিপদে। ইংল্যান্ড-স্কটল্যান্ডের সে ম্যাচে ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছিলেন স্কটল্যান্ডের মিডফিল্ডার বিলি গিলমোর; গিলমোর ক্লাব ফুটবল খেলেন চেলসিতে। সেদিন বিলির চেলসি সতীর্থ মাউন্ট ও চিলওয়েল ম্যাচ শেষে আলিঙ্গন করেছিলেন গিলমোরকে; আর এতেই বাধে বিপত্তি। গিলমোর সর্বশেষ করোনা টেস্টে করোনা পজিটিভ হলে তাকে পাঠানো হয় ১০ দিনের আইসোলেশনে। মাউন্ট ও চিলওয়েল তাদের করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ হলেও গিলমোরের সংস্পর্শে আসায় চেলসি ও ইংল্যান্ডের দুজনকে খেলোয়াড়কে পাঠানো হয়েছে আইসোলেশনে।

মহাগুরুত্বপূর্ণ চেক রিপাবলিকের বিরুদ্ধে ম্যাচের আগে ইংল্যান্ড শিবির এই দুজনকে পাবে কিনা এখনো অনিশ্চিত। মাউন্ট দুই ম্যাচেই ইংল্যান্ডের শুরুর একাদশে ছিলেন। তাই চেকদের বিপক্ষে ম্যাচে তাকে না পেলে ভুগতে পারে “থ্রি-লায়ন্স”। ইংল্যান্ড ম্যানেজার গ্যারেথ সাউথগেট বলেছেন, “এই মুহুর্তে জানিনা আমরা তাদের পাবো কিনা, সংশয় রয়েছে। এখনো বেশকিছু তদন্ত বাঁকি। ওরা নিজেদের আইসোলেট করেছে এবং আমাদের কমপক্ষে ১২ ঘন্টা অপেক্ষা করতে হবে”। তিনি আরও বলেন, চেক রিপাবলিক ম্যাচের আগে ইংল্যান্ডের জন্য এর চেয়ে বাজে কোনো প্রস্তুতি হতেই পারতোনা।

 

ইউয়েফার স্বাস্থ্য বিভাগের সবুজ সংকেত না পেলে পরের রাউন্ডেও মেসন মাউন্টকে মিস করতে পারে ইংল্যান্ড। স্কটল্যান্ডের জন্য পরিস্থিতি আরও নাজুক। ইউরোর সমীকরণে টিকে থাকতে হলে ক্রোয়েশিয়ার সাথে ২৩ তারিখের ম্যাচে স্কটিশদের জিততেই হবে। সেক্ষেত্রে আগের ম্যাচের সেরা খেলোয়াড়কে ছাড়া মাঠে নামা তাদের মানসিকভাবে পিছিয়ে রাখতে পারে। স্কটল্যান্ড পরের রাউন্ডে গেলেও ১০ দিনের আইসোলেশনের কারণে পাবেনা গিলমোরের সার্ভিস।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img