৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার

এক ম্যাচ হাতে রেখেই নিউজিল্যান্ডের সিরিজ নিশ্চিত!

- Advertisement -

সেডন পার্কে পাকিস্তান ম্যাচ হেরেছে, সিরিজ হেরেছে। কিন্তু দলের পরাজয়ের কষ্টের চেয়ে মোহাম্মদ হাফিজের কাছে বড় আক্ষেপ এখন ৯৯ সংখ্যা! মাত্র এক রানের আক্ষেপ। ৯৭টি ম্যাচের পর টি-টোয়েন্টিতে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি হয়েও হলো না। বলের সঙ্গে হিসেবটা মিলাতে পারলে হয়তো সেঞ্চুরিটা হয়ে যেত। তারপরও হাফিজের ৯৯ রানের অপরাজিত ইনিংসই হ্যামিল্টনে পাকিস্তানকে দিয়েছিলো লড়াইয়ের পুঁজি।

কিন্তু হাফিজের ৯৯ রানও রক্ষা করতে পারেনি পাকিস্তানের পরাজয়। তাকে ছাপিয়ে গেলেন সেইফার্ট এবং উইলিয়ামসন। টিম সেইফার্ট এবং কিউই অধিনায়কের জোড়া হাফ সেঞ্চুরিতে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি স্বাগতিকরা জিতে নিয়েছে ৯ উইকেটে। চার বল বাকি থাকতেই ১৬৪ রানের লক্ষ্যে পৌছায় কিউইরা। সেইফার্ট ৮৪ আর উইলিয়ামসন অপরাজিত থাকেন ৫৭ রানে। টানা দুই ম্যাচ জিতে সিরিজে তারা এগিয়ে ২-০ ব্যবধানে।

তার আগে টস জয়ী পাকিস্তানের ইনিংসের শুরুটা ভালো হয়নি। ৫৬ রান তুলতেই চার উইকেট হারায় তারা। কিন্তু মোহাম্মদ হাফিজ এই ম্যাচটাকে হয়তো নিয়েছিলেন সমালোচনার জবাব হিসেবে। ব্যাটে আসলো সেই জবাব। কয়েকদিন আগেই পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটাররা হাফিজের সমালোচনায় মেতেছিলেন। আপাতত সমালোচকদের মুখ বন্ধ, বুঝিয়ে দিয়েছেন এখনো ফুরিয়ে যাননি। ৫৭ বলে ৯৯ রানের মারকাটারি ইনিংস খেলেন। ইনিংসের শেষ ওভারে সেঞ্চুরির জন্য হাফিজের দরকার ছিল ১৮ রান। আর শেষ বলে ৭ রান। ছক্কা হাঁকিয়েও কাজ হলো না। আক্ষেপ নিয়েই মাঠ ছাড়তে হলো এই অভিজ্ঞ ক্রিকেটারকে।

স্কোর: পাকিস্তান ১৬৩/৬ (হাফিজ ৯৯*, রিজওয়ান ২২) সাউদি ৪/২১

নিউজিল্যান্ড ১৬৪/১ (সেইফার্ট ৮৪*,  উইলিয়ামসন ৫৭*) ফাহিম ১/১৯

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img