NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

এবারের এনসিএল অনেক প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ হবে: হাবিবুল বাশার

- Advertisement -

১৭ অক্টোবর থেকে শুরু হতে যাচ্ছে জাতীয় ক্রিকেট লিগ। দলগুলোও নিচ্ছে নিজেদের শেষ মুহুর্তের প্রস্তুতি। প্রতিটা দলেই দেয়া হয়েছে ২২জন করে খেলোয়াড়, ১ তারিখে ফিটনেস টেস্টের পর জানা যাবে চূড়ান্ত স্কোয়াড। তার আগে জাতীয় ক্রিকেট লিগ (এনসিএল) নিয়ে গণমাধ্যমের সাথে কথা বলেছেন জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন।

“২০-২২ জনের একটা দল করে দেয়া হয়েছে, তাদের ফিটনেস ট্রেনিং চলছে। ১ তারিখে ফিটনেস টেস্ট হবে। এরপরে আমরা ১৬ জনের দল করে দিবো। সবসময়ই ১৪ জনের দল দিলেও এবার করোনার কারণে দুইজন বেশি দিচ্ছি“- স্কোয়াড নিয়ে বলছিলেন হাবিবুল বাশার

এবারে প্রস্তুতির জন্য প্রতিটা দলই বেশ সময় পাচ্ছে। উইকেটগুলোও পাচ্ছে যথেষ্ঠ বিশ্রাম। জমজমাট একটা জাতীয় লিগের অপেক্ষায় টাইগার নির্বাচক।

“কিছুটা সময় নিয়েই এবারের এনসিএল শুরু করছি। দলগুলিকে যথেষ্ঠ সময় দেয়া হচ্ছে। উইকেটগুলো গত কয়েক মাসে বেশ বিশ্রাম পেয়েছে। আশা করি এবারের এনসিএল অনেক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে”- বলছিলেন জাতীয় দলের নির্বাচক

নভেম্বরে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ

নভেম্বরে বাংলাদেশের মাটিতে দুই ম্যাচ সিরিজের টেস্ট খেলতে আসছে পাকিস্তান। বিশ্বকাপ স্কোয়াডে নেই লাল দলের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড়। তাদের জন্য এনসিএল হতে পারে দারুণ প্রস্তুতির মনে করেন বাশার।

“এনসিএল খেলোয়াড়দের প্রস্তুতির জন্য সবচেয়ে ভালো জায়গা হতে পারে। এর আগে কোনো প্রস্তুতি ছাড়া টেস্ট ম্যাচে নামার পূর্বে প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলা হত, সেখানে আসলে সেই প্রস্তুতিটা হয়না। আশা করি, এনসিএলে খেলোয়াড়েরা সেরা প্রস্তুতিটাই নিবে”- যোগ করেন বাশার

করোনা জটিলতায় মাঝপথেই বন্ধ হয়ে গিয়েছিল আগের মৌসুমের এনসিএল। এবারে তাই বাড়তি সতর্কতার সাথে জাতীয় লিগ আয়োজন করতে যাচ্ছে বিসিবি। জার্নি এড়াতে খেলা হবে দুটি ভেন্যুতে।

“আমরা চাই সবাই সবার ডিভিশনে যেয়ে খেলুক। কিন্তু করোনার কারণে ট্রাভেলিং ঝুঁকিটা নিতে চাচ্ছি না, গতবারের এনসিএল একারণেই কিন্তু বন্ধ হয়ে গেছিল। দুটি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে এবারের এনসিএল। কক্সবাজার আর সিলেটে“- এনসিএলের ভেন্যু প্রসঙ্গে জাতীয় দলের নির্বাচক

‘এ’ দলের হয়ে খেলবেন মুশফিক-সৌম্য

বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে ‘এ’ দলের হয়ে এইচপি দলের বিপক্ষে দুইটি ওয়ানডে খেলবেন মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার। এইচপি দলে খেলবেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শামিম পাটোয়ারিরাও। কিন্তু, চাইলে খেলতে পারবেন জাতীয় দলে থাকা যেকোনো খেলোয়াড়, অলরাউন্ডারের করা প্রশ্নে এমনটাই জানিয়েছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক।

“মুশফিক, বিপ্লব, শামিম, সৌম্যরা খেলছে। বিপ্লব, শামিম তো এইচপি দলেরই সদস্য। তবে, খেলতে পারবে জাতীয় দলে থাকা যে কেউই,  ফ্রি রেখেছি সবার জন্য”- বলছিলেন বাশার

দেশের মাটিতে পাকিস্তানকে হারিয়ে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের সূচনাটা জয় দিয়েই করতে চায় টাইগাররা।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img