১৯ জুন ২০২৪, বুধবার

‘এল ক্লাসিকো’র আগে বার্সেলোনার কষ্টার্জিত জয়!

- Advertisement -

আগামী শনিবার বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদ ধ্রুপদী লড়াই। ফুটবল বিশ্বের সেরা দ্বৈরথ বলা হয় ‘এল ক্লাসিকো’কে। সেই লড়াইয়ের আগে কোম্যানের বার্সেলোনাকে বেশ ঘাম ঝড়িয়ে জয় পেতে হয়েছে। রেলিগেশন জোনের কাছাকাছি থাকা ভায়াদোলিদের বিপক্ষে শেষ মূহুর্তের গোলে জয় পেয়েছে। বার্সেলোনাকে পূর্ণ পয়েন্ট এনে দিয়েছেন ওসমান দেম্বেলে। তার একমাত্র গোলে বার্সেলোনা পয়েন্ট তালিকায় রিয়াল মাদ্রিদকে টপকে এখন দ্বিতীয় স্থানে। টপে থাকা আতলেতিকো মাদ্রিদ থেকে মাত্র এক পয়েন্ট পিছনে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা।

ন্যু ক্যাম্পে ম্যাচে প্রায় ৭০ ভাগ সময় বল দখলে রেখেও ভায়াদোলিদের জমাট রক্ষণে ফাটল ধরাতে বারবার ব্যর্থ হচ্ছিল কাতালানরা। গোলপোস্টে ২৫ শট নিয়ে মাত্র দশটা লক্ষ্যে রাখতে পারে তারা।  প্রথমার্ধে  আক্রমণের পসরাও সাজিয়েছিলো বার্সেলোনা। যদিও প্রথম দশ মিনিটে দুই দফা বার্সার রক্ষণে হানা দেয় ভায়াদোলিদ। এগিয়ে যাওয়ার সুযোগও ছিল। যদি ফরোয়ার্ড কেনান কদ্রোর হেড বাধা না পেতো ক্রসবারে।

প্রথমার্ধে শেষ সময়ে বার্সেলোনার এগিয়ে যাওয়ায় বাধা ছিলেন ভায়াদোলিদ গোলরক্ষক জর্ডি মাসিপ। ডি-বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া প্রেদ্রির নিচু শটটি ঝাঁপিয়ে ঠেকান মাসিপ।

বার্সেলোনার হতাশা আরো বাড়ে যখন অধিনায়ক লিওনেল মেসির ভাগ্যও সহায় হচ্ছিলনা। ৭১ মিনিটে মেসির বুলেট গতির শট গোলপোস্ট ঘেষে চলে যায়।

শেষ দশ মিনিটে বার্সেলোনার চাপ আরো বাড়ে প্রতিপক্ষের রক্ষণে। মেসি-দেম্বেলেদের রুখতে হিমশিম খাওয়া ভায়াদোলিদ আরো বিপদে পড়ে ৭৯ মিনিটে। দেম্বেলেকে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখেন অস্কার প্লানো। যদিও রেফারির সিদ্ধান্তে বিতর্ক ছিল।

দশজনের দলকে পেয়ে বার্সাও সুযোগ কাজে লাগায়, নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে। রোনাল্ড আরাহো’র ফ্লিক করা বলকে আলতো ভলিতে জালে পাঠান দেম্বেলে। নিশ্চিত ড্র’য়ের ম্যাচে ন্যু ক্যাম্পে জয়ের উৎসব আনেন এই ফরাসি তারকা।

 ২৯ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে বার্সেলোনা তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। এক পয়েন্ট বেশি নিয়ে আতলেতিকো শীর্ষে। আর তিন নাম্বারে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ৬৩। ২৭ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ১৬ নাম্বারে ভায়াদোলিদ।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img