৬ ডিসেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

চলতি মৌসুমে ইউরোপের শীর্ষ ২০ ক্লাবের ক্ষতি ১৭০ কোটি পাউন্ড!

- Advertisement -

ইংল্যান্ডের সার্ভে প্রতিষ্ঠান পেশাদার সার্ভিসেস ফার্ম ডেলোয়েট স্পোর্ট বিজনেস গ্রুপ ইউরোপের শীর্ষ ধনী ২০ ক্লাবের উপর জরিপ চালিয়েছে, করোনায় কি পরিমাণ আর্থিক ক্ষতি হয়েছে ক্লাবগুলোর, সেই জরিপের একটি তথ্য প্রকাশ করেছে বৃটিশ গণমাধ্যম বিবিসি। চলতি মৌসুম শেষে ওই ২০ ক্লাবের ক্ষতির পরিমাণ হবে এক দশমিক ৭ বিলিয়ন পাউন্ডের বেশি, অর্থাৎ ১৭০ কোটি পাউন্ডেরও বেশি।

দর্শকবিহীন স্টেডিয়ামগুলো অপেক্ষায় আছে কবে কানায় কানায় পূর্ণ হবে ফুটবল সমর্থকদের দিয়ে। যদিও অল্প কিছু দর্শক খেলা দেখার সুযোগ পাচ্ছে এখন কিন্তু এই দর্শকদের কেনা টিকিট থেকে প্রাপ্ত অর্থের একটা অংশ ক্লাবগুলোও পেয়ে থেকে। অথচ ম্যাচ ডে রেভিনিউ থেকে আয় বন্ধ ক্লাবগুলোর। এছাড়া সম্প্রচার স্বত্ব থেকেও আর্থিক অনেক ক্ষতি হয়েছে তাদের। ওই জরিপ প্রতিষ্ঠান জানিয়েছে ২০১৯-২০ মৌসুমে ক্লাবগুলো ক্ষতি হয়েছিল ৯৭৬ মিলিয়ন পাউন্ডের বেশি।

ইউরোপের ২০ ক্লাবের মধ্যে সবচেয়ে বেশি আয় করে স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনা। অথচ ক্ষতির হিসেবে তারা এখন দ্বিতীয় স্থানে। ২০১৮-১৯ মৌসুমে তাদের আয় ছিল ৬৪১ দশমিক এক মিলিয়ন পাউন্ড। সেটা নেমে এসেছে ৬২৭ মিলিয়নে। তাদের চির প্রতিদ্বন্দ্বি রিয়াল মাদ্রিদের একই অবস্থা। এক বছরের জরিপে আয়ের দিক দিয়ে সেরা তিনে নেই ইংলিশ কোন ক্লাব। বায়ার্ন মিউনিখ তৃতীয় স্থানে। পরের দুই জায়াগায় রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং লিভারপুর। গেল বছরের জরিপের ২০ ক্লাবের ১৮টি আছে এই তালিকায়।

তবে আশার কথাও আছে, এই দুর্দিনেও বার্সেলোনার আয়টাও একেবারে কম না। ২০২০-২১ মৌসুমের সবচেয়ে বেশি আয় করা ক্লাব বার্সেলোনা। করোনাকালে আয়-উপার্জনের দিক দিয়ে প্রতিটি ক্লাবই ক্ষতির সম্মুখীন হলেও এর মধ্যেই সবাইকে টেক্কা দিতে পেরেছে বার্সেলোনা। জরিপ অনুযায়ী, এই সময়ে বার্সেলোনা আয় করেছে ৬২৭ দশমিক ১ মিলিয়ন পাউন্ড বা ৬২ কোটি ৭১ লাখ পাউন্ড। বাংলাদেশি হিসাবে প্রায় ৭ হাজার ৩০০ কোটি টাকা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। তাদের আয় ৬২ কোটি ৭০ লাখ পাউন্ড।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img