NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৪ আগস্ট ২০২২, রবিবার

কাদিজের বিপক্ষেও ফিরলো না বার্সেলোনার ভাগ্য

- Advertisement -

বার্সেলোনার গাড়ি ছুটছে এমন এক টানেলে, যেটির শেষপ্রান্তে কোন আলোর রেখাই দেখা যাচ্ছে না আপাতত। গত পাঁচ ম্যাচে মাত্র একটিতে জিতেছে রোনাল্ড কোম্যানের দল। বৃহস্পতিবার লা লিগার ম্যাচেও কাদিজের মাঠ থেকে গোলশূন্য ড্র নিয়ে ফিরেছে বার্সা। মিডফিল্ডার ফ্র্যাঙ্কি ডি ইয়ং দেখেছেন বিতর্কিত লাল কার্ড। লাল কার্ড দেখেছেন কোচ কোম্যানও; যাঁর চাকরি-ভাগ্যও হয়তো এই ম্যাচের পর ঝুলছে চিকন সুতোয়।

ঘরের মাঠে কাদিজের রণপরিকল্পনা ছিল বরাবরের মতই রক্ষণাত্মক। সেই রক্ষণের দেয়ালে চিড় ধরাতে পারেনি বার্সা। মেম্ফিস ডিপে-লুক ডি ইয়ংরা সহজ সব সুযোগ নষ্ট করেছেন; কাদিজের ডি বক্সে নিয়েছেন দূর্বল সব শট। ছিল ভুল পাশের ছড়াছড়ি। বলের দখলে এগিয়ে থাকলেও কাদিজের গোলমুখে বার্সা মোট শট নিয়েছে মাত্র ৬টি; অপরদিকে রক্ষণাত্মক খেলা কাদিজ বার্সার গোলমুখে শট নিয়েছে ১৩টি। আক্রমণভাগের সাথে সাথে বার্সার রক্ষণও যে কি পরিমাণ ছন্নছাড়া ছিল এই ম্যাচে তা এর থেকেই পরিষ্কার বুঝা যায়।

Image
মেমফিস ডিপে মিস করেছেন সহজ সব সুযোগ

দ্বিতীয়ার্ধের ৬৪ মিনিটে বার্সেলোনার মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে আসে ফ্র্যাঙ্কি ডি ইয়ংয়ের লাল কার্ড। মাঝমাঠে আলফন্সো এসপিনোর সাথে বল দখলের লড়াইয়ে সংঘর্ষ ঘটে ডি ইয়ংয়ের। যদিও টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় এসপিনোর পায়ে আঘাত করার আগে বল স্পর্শ করেছিলেন ডি ইয়ং, অর্থাৎ ফাউলটি খুব সম্ভবত অনিচ্ছাকৃত; তবুও তাকে দেখানো হয় লাল কার্ড।

ডি ইয়ং মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাবার পর দশজনের বার্সেলোনার ওপর চড়াও হয় কাদিজ। তবে গোলকিপার মার্ক-আন্দ্রে টের স্টেগানের দৃঢ়তায় গোল খায়নি বার্সা; তবে গোল করতেও পারেনি। উল্টো ম্যাচের শেষদিকে সের্হিও বুসকেতসের হলুদ কার্ডের প্রতিবাদ করে ডাগ আউটে লাল কার্ড দেখেন কোচ রোনাল্ড কোম্যান।

এই ড্রয়ের ফলে ১ ম্যাচ কম খেলে পয়েন্ট টেবিলের ৭ম স্থানে রয়েছে বার্সেলোনা। এই নিয়ে কাদিজের বিপক্ষে টানা দুইম্যাচ জয়হীন থাকলো বার্সেলোনা। এমনকি কোম্যান কোচ হয়ে আসার পর বার্সেলোনার জয়ের হার মাত্র ৬০%; ২০০৮ সালে ফ্রাঙ্ক রাইকার্ডের আমলের পর যা সর্বনিম্ন। এই ম্যাচের পর কোম্যানের চাকরি টিকবে কিনা; তা সময়ই বলে দেবে।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img