৬ অক্টোবর ২০২২, বৃহস্পতিবার

কোহলির ফিফটির পরও কোনোমতে ভারতের দেড়শ

- Advertisement -

চির প্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের বিপক্ষে টসে হেরে আগে ব্যাট করে ৭ উইকেটে ১৫১ রান করেছে ভারত। ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। পাকিস্তানের হয়ে ৩১ রানে ৩ উইকেট নেন ।

দুবাইয়ে ম্যাচের চতুর্থ বলেই দারুণ এক ইয়র্কারে রোহিত শর্মাকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেললেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। প্যাভিলিয়নে ফেরার পথে রোহিতের হয়তো মোহম্মদ আমিরের কথাই মনে পড়েছে, ওভার দ্য উইকেট থেকে রোহিতকে এভাবে আউট করা তো নিজের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছিলেন আমির। আমিরের বিখ্যাত ইনসুইং ডেলিভারি ফিরিয়ে এনেছিলেন নিজের পরের ওভারেই, এবার তার শিকার লোকেশ রাহুল। মুহুর্তেই ভারত দুই উইকেটে ৭ রানের দল।

চার নম্বরে নেমে দারুণ এক ছক্কায় ভালো ইনিংস খেলার আভাস দিয়েছিলেন সুরিয়াকুমার যাদব। তবে তিনিও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি, ব্যক্তিগত ১১ রানে হাসান আলীর বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন। তবে সেটা যতটা না হাসানের উইকেট, তার থেকেও বেশি উইকেট রক্ষক মোহম্মদ রিজওয়ানের। ডানদিকে ঝাপিয়ে পড়ে দারুণ ক্যাচ নিয়েছেন তিনি। ভারতের রান তখন ৩ উইকেটে ৩১।

বাকিটা সময় ইনিংস মেরামতের দায়িত্ব নিয়েছিলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি, তার সঙ্গী উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ঋশভ পান্থ। দুজনে মিলে গড়েন ৫৩ রানের জুটি। দলীয় ৮৪ রানে লেগ স্পিনার শাদাব খানের বলে তার হাতেই ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন পান্থ। তখন তার নামের পাশে সমান দুটো করে চার এবং ছয়ে ৩০ বলে ৩৯ রান।

১৯তম ওভারে শাহীনের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন কোহলি। ৪৭ বলে ৫৭ রান করে ক্রিজে ফিরে গেছেন টিম ইন্ডিয়া ক্যাপ্টেন। তবে সেই ওভারে শাহীন দিয়েছেন ১৭ রান। শুধুমাত্র শেষবল থেকেই এসেছে ১০ রান।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img