NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৯ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার

“ক্ল্যাশ অব দ্য রেডস” আজ রাত ১:১৫ মিনিটে

- Advertisement -

ইংলিশ ফুটবলে সবচেয়ে বড় ম্যাচ আজ রাতে। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মুখোমুখি হবে লিভারপুল। “ক্ল্যাশ অব দ্য রেডস” শুরু বৃহস্পতিবার (বাংলাদেশ সময় শুক্রবার রাত ০১:১৫ মিনিট)

ছবি: সংগৃহীত

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এরইমধ্যে আগামী চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা পাকা করেছে, ঝুলে আছে লিভারপুল। শুধু ঝুলেই নেই, ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা আগামী চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা করে নিতে পারবে না সেই সম্ভাবনাও যথেষ্টই!! আশা টিকিয়ে রাখতে চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষে লিভারপুলের জয়ের বিকল্প নেই। এই সব সমীকরণ ছাপিয়েও দিন শেষে ম্যাচটা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড বনাম লিভারপুল, ইংলিশ ফুটবলের সবচেয়ে সফল দুই দলের লড়াই। স্পেনে রিয়াল-বার্সা “এল ক্ল্যাসিকো” লড়াই যে পর্যায়ে, ইংল্যান্ডের “ক্ল্যাশ অব দ্য রেডস” একই কাতারে।

চোটের কারণে ইউনাইটেড হ্যারি ম্যাগুয়েরকে পাবে না। অবশ্য সবশেষ ম্যাচে লেস্টার সিটির বিপক্ষে একাদশে দশটা বদল করা ম্যানচেস্টারের সেরা ফুটবলাররা সবাই কমবেশি বিশ্রাম পেয়েছেন, যা কাজে লাগবে লিভারপুলের বিপক্ষে। আর অলরেড শিবির মানেইতো এই মৌসুমে ইনজুরির ঘরবাড়ি, বিশেষ করে ডিফেন্সে। তবে ইয়ুর্গেন ক্লপের সবচেয়ে বড় মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে আছে বিখ্যাত “ফ্রন্ট থ্রির” দুই জন সাদিও মানে আর রবের্তো ফিরমিনো প্রত্যাশিত পারর্ফম্যান্স করতে না পারা। ডিফেন্সের ইনজুরি লিভারপুলকে যতোটা ভুগিয়েছে, তারচেয়ে বেশি সমস্যা তৈরী করেছে গোল না পাওয়া।

ছবি: সংগৃহীত

৩৪ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট পাওয়া লিভারপুল পয়েন্ট টেবিলের ছয়ে। যদি ম্যানচেস্টারের সাথে হেরে যায় কিংবা ড্রও করে, তাহলে গাণিতিকভাবেই কেবল অলরেডদের আগামী চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার আশা টিকে থাকবে। উল্টো দিকে, রেড ডেভিলদের যদি চ্যাম্পিয়নশিপও নিশ্চিত থাকতো, তাহলেও হয়তো আভিজাত্যের এই লড়াইয়ে সেরা একাদশ নামিয়ে ম্যাচ জেতার সর্ব্বোচ্চ চেষ্টাই করতো ৩৫ ম্যাচে ৭০ পয়েন্টে টেবিলের দুইয়ে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

পরিসংখ্যান প্রায় সমানে সমান হলেও সাম্প্রতিক ফর্ম আর পারর্ফম্যান্সে এগিয়ে ম্যানচেস্টার। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে সবশেষ ১৫ ম্যাচে লিভারপুলের সাথে একবারই হেরেছে ইউনাইটেড, সেই হারটাও ২০১৪ সালের মার্চে। রেড ডেভিলদের ঘরের মাঠের হিসাব বাদ দিলে অবশ্য “অলরেড” এগিয়ে। শেষ নয় দেখায় একবারই লিভারপুলকে হারাতে পেরেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। হোম বা অ্যাওয়ে, শেষ পাঁচ দেখাতেও “দ্য রেডদের” হারাতে পারেনি “রেড ডেভিলস”। ইংলিশ টপ ফ্লাইট ফুটবলে এর আগে একবারই টানা পাঁচ ম্যাচ লিভারপুলের বিপক্ষে জয়হীন ছিলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ২৯ বছর আগে।

ছবি: সংগৃহীত

তথ্য কিংবা পরিসংখ্যান হয়তো কোচ, ফুটবলার বা ভক্তদের জন্য সাময়িক স্বস্তি বা সান্ত্বনা হতে পারে কিন্তু ম্যাচের ফল বা খেলার ধরণে এগুলোর প্রভাব একেবারেই নস্যি। বড় ম্যাচের চাপ সামলানো, প্রয়োজনের সময় সেরা খেলোয়াড়দের জ্বলে ওঠা, পরিকল্পনা অনুযায়ী খেলাটা খেলতে পারা; এগুলোই হয়ে দাঁড়ায় ম্যাচে প্রত্যাশিত ফল পাওয়ার নিয়ামক। আর ইংলিশ ক্লাব ফুটবলে বড় ম্যাচের প্রসঙ্গ যখনই আসে, তখনই সবার আগে দর্শকদের মাথায় ঘোরে ম্যানচেস্টার বনাম লিভারপুল!!

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img