৬ অক্টোবর ২০২২, বৃহস্পতিবার

আইসিসির কাঠগড়ায় কুমারা-লিটন

- Advertisement -

সামান্য সরে গিয়ে লাহিরু কুমারার বলটিকে মিড অফ দিয়ে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিলেন লিটন দাস, ফিরে যাওয়ার সময় তার উদ্দেশ্যে কি যেন বলতে বলতে এগিয়ে এলেন কুমারা। সাথে সাথে লিটন গেলেন তেতে; তেড়ে গেলেন কুমারার দিকে। মাঠে থাকা নাইম শেখ, শ্রীলঙ্কান ফিল্ডার ও আম্পায়াররা দুজনকে না থামালেন। কি বলেছিলেন কুমারা? কেন এতো রেগে গিয়েছিলেন লিটন?

কারণ যাইহোক, শাস্তি দুজনই পাচ্ছেন। আইসিসির আচরণবিধি ভঙ্গের দায়ে শ্রীলঙ্কান পেসার লাহিরু কুমারা ও বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে জরিমানা করা হয়েছে। তাদের নামের পাশে যোগ হয়েছে একটি করে ‘ডিমেরিট পয়েন্ট’ও।

অবশ্য আইসিসি ব্যাপারটি খতিয়েও দেখেছে। বিবাদের সূচনাকারী লাহিরু কুমারাই ছিলেন, তার কটুবাক্যের জের ধরেই ক্ষেপেছিলেন লিটন। তবে এরপর লিটনও মেজাজ হারিয়ে তেড়ে গিয়েছিলেন। তাই জরিমানার পরিমাণ সমান না হলেও, জরিমানা থেকে বাঁচছেন না কেউই

কুমারাকে আইসিসি কোড অব কনডাক্টের ২.৫ নং অনুচ্ছেদের (‘ব্যাটার’ আউট হওয়ার সময় তাকে উদ্দেশ্য করে এমন কোন বাক্য, অঙ্গভঙ্গি বা আচরণ করা যাতে সে ক্ষেপে যায়) আলোকে ফাইন করা হয়েছে ম্যাচ ফির ২৫%, নামের পাশে যোগ হয়েছে ১টি ডিমেরিট পয়েন্ট।

লিটন দাসকে আইসিসি কোড অব কনডাক্টের ২.২০ অনুচ্ছেদের আলোকে (এমন কোন আচরণ যা খেলার চেতনার পরিপন্থী) ম্যাচ ফির ১৫% ফাইন করা হয়েছে, তার নামের পাশেও ডিমেরিট পয়েন্ট বসেছে ১টি।

ম্যাচশেষে ম্যাচ রেফারি জাভাগাল শ্রীনাথ কুমারা-লিটন দুজনকেই ডেকে এই রায় শোনান, দুজনই বিনা বাক্যব্যয়ে নিজেদের দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন ও শাস্তি মেনে নিয়েছেন।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img