২১ মে ২০২৪, মঙ্গলবার

টাইগারদের সামনে শাহিন-রউফদের পেস সামলানোর পরীক্ষা

- Advertisement -

বুধবার শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপের সুপার ফোরের লড়াই। প্রথম দিনেই পাকিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে ৩:৩০ মিনিটে শুরু হবে ম্যাচটি।

সুপার ফোরের শুরুর দিনই কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে সাকিব আল হাসানের দলকে। সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বের অন্যতম সেরা পেস আক্রমণের মুখোমুখি হবে মেহেদী হাসান মিরাজ-মুশফিকুর রহিমরা। টাইগাররা টুর্নামেন্টে প্রথম দুই ম্যাচে যে পেস আক্রমণ মোকাবেলা করে এসেছে তার চেয়ে শাহিন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ ও হারিস রউফদের বোলিংয়ের মান তুলনামুলক ভালো।

কিন্তু লাহোরের ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে খেলা হওয়ায় ম্যাচে রান হতে পারে বেশি। সেক্ষেত্রে ইনিংসের শুরুটা ভালো করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে এখানেই টাইগারদের জন্য রয়েছে শঙ্কা। কারণ নতুন বলে উইকেট নেওয়ার ক্ষেত্রে খুবই পারদর্শী শাহিন। ইনিংসের শুরুতে গতি ও সুইং দিয়ে উইকেট তুলে নেওয়ার ক্ষমতা রাখেন নাসিম। এছাড়াও পাকিস্তানের ব্যাটারদের নিয়েও ভাবতে হচ্ছে তাসকিন আহমেদ-শরীফুল ইসলামদের। ব্যাটিং সহায়ক উইকেট ও সেই সাথে ঘরের মাঠে খেলা। একটু সুবিধাজনক স্থানে থেকেই মাঠে নামবে বাবর আজমের দল।

পাকিস্তানকে হারাতে হলে বোলিংয়েও ভালো করতে হবে

উইকেট যেমনই হোক না কেনো পাকিস্তানের বিপক্ষে ভালো করার বিষয়ে আত্ববিশ্বাসী বাংলাদেশ। মঙ্গলবার বিসিবির পাঠানো ভিডিও বার্তায় টাইগার পেসার তাসকিন আহমেদ বলেছেন, “এ রকম উইকেটে (লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়াম) বোলারদের মার্জিন কম থাকে, একটু এদিক–সেদিক হলেই বাউন্ডারি খাওয়ার সুযোগ বেশি। পাকিস্তানের ব্যাটিং বিশ্বের অন্যতম সেরা। সহজ হবে না, তবু আমাদের বিশ্বাস আছে, আমরা সেরাটা দিতে পারলে ওদের কমের মধ্যে আটকাতে পারব”

পাকিস্তানের বিপক্ষে নামার আগে হ্যামস্ট্রিংয়ের ইনজুরিতে এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে যাওয়ায় নাজমুল হোসেন শান্তকে পাচ্ছে না বাংলাদেশ। আগের দুই ম্যাচে ৮৯ ও ১০৪ রানের ইনিংস খেলা বাঁহাতি এই ব্যাটারকে না পাওয়া বড় ক্ষতি। লিটন কুমার দাশ দলে যোগ দেওয়ায় টপঅর্ডারের শক্তি বেড়েছে টাইগার শিবিরে।

বাবর আজমের দলের বিপক্ষে নামার আগে সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান দেখে কিছুটা স্বস্তি পেতে পারেন টাইগার সমর্থকরা। দুই দলের ওয়ানডেতে শেষ পাঁচবারের দেখায় চারবার পাকিস্তানকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তবে ২০১৯ সালে শেষবারের দেখায় ফখর জামানদের কাছে ৯৪ রানে হেরেছিলো সাকিব-মিরাজরা।

দেখা যাক পাকিস্তানকে হারিয়ে সুপার ফোরে শুভ সূচনা করতে পারে কিনা বাংলাদেশ।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img