২৩ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার

টানা সাত জয়, এক নম্বরেই থাকল রংপুর

- Advertisement -

হার দিয়ে শুরু, এরপর জয়ের দেখা পেলেও তৃতীয় ম্যাচেই আবার হার! প্রথম তিন ম্যাচেই দুই পরাজয়! চার থেকে দশ, পরের সাত ম্যাচে অবশ্য রংপুর রাইডার্সকে হারাতে পারেনি কেউ। সর্বমোট ৮ জয় নিয়ে নুরুল হাসান সোহানের দল এখন পয়েন্ট তালিকার সবার ওপরে।

চট্টগ্রামের মাঠে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ম্যাচ, টসে জিতে সোহানের ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত। শুরুটা ঠিকঠাক না হলেও, সাকিব আল হাসান আর শেহ মেহেদীর দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে রংপুরের স্কোরবোর্ডে ১৮৭! সাকিবের ব্যাট থেকে এসেছে দলীয় সর্বোচ্চ ৩৯ বলে ৬২, মেহেদী মাত্র ১৭ বলে করেছেন ৩৪ রান। ৯ বলে ১৭ রানের ছোট কিন্তু কার্যকরী এক ক্যামিও ইনিংস দেখা গেছে শামীম পাটোয়ারির ব্যাটেও।

যেই উইকেটে খেলা, ১৮৮ রান করা যে খুব সহজ হবে না তা অনুমান করা যাচ্ছিল প্রথম ইনিংস শেষেই। ডোয়াইন প্রিটোরিয়াসের কল্যাণে অনুমান সত্য হবার সম্ভাবনা শুরুতেই পাওয়া গেছে। টানা ৪ ওভার বল করে মাত্র ১৪ রান দিয়ে তিনি যে একা নিয়েছেন ৩ উইকেট! যদিও টম ব্রুশ (২৪) আর শুভাগত হোম (২১) মিলে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন কিন্তু নিজের প্রথম ওভারেই দুই সেট ব্যাটারকে প্যাভিলিয়নের পথ দেখিয়েছেন শেখ মেহেদী।

ভাবা হচ্ছিল এরপর চট্টগ্রাম আর খেলায় ফিরতে পারবে না, হারবে বড় ব্যবধানেই। কিন্তু ব্যাটিংয়ে যখন ক্যারিবিয়ান কেউ, তখন আসলে উপসংহার অব্দি পৌঁছে যাওয়া কিছুটা কঠিন। কে ভেবেছিল রোমারিও শেফার্ড শেষ অব্দি খেলবেন দিনের সবচেয়ে ঝড়ো ইনিংস! যদিও তার ৩০ বলে ৬৬* রান শুধু হারের ব্যবধানটাই কমিয়েছে। শেষ অব্দি স্বাগতিকদের স্কোরবোর্ডে ৬ উইকেটে ১৬৯, রংপুরের জয় ১৮ রানে।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img