১ ডিসেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার

টেস্টে পয়ত্রিশ হাজার বল করলেন অ্যান্ডারসন

- Advertisement -

ইনজুরি শঙ্কায় মাঠে নামা নিয়েই ছিল সন্দেহ; সেই সন্দেহ দূর তো করেছেনই, উল্টো মাঠে নেমে মাইলফলক স্পর্শ করেছেন জেমস অ্যান্ডারসন। প্রথম পেসার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে ৩৫,০০০ বল করার রেকর্ড গড়লেন এই ইংলিশ তারকা। বৃহস্পতিবার ভারতের বিপক্ষে লর্ডস টেস্টে এই কীর্তি গড়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়েছে ভারত-ইংল্যান্ডের পাঁচ ম্যাচের সিরিজ দ্বিতীয় টেস্ট। দিনের শুরুতে ওয়ার্মআপের সময় সবার চোখ ছিল ইংলিশ পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের দিকে। উরুর চোট ভাবাচ্ছিল, মাঠে নামা নিয়েই ছিল সংশয়। তবে সব সংশয় পায়ে ঠেলে মাঠে নেমেছেন অ্যান্ডারসন। শুধু মাঠে নেমেই থামেননি, রীতিমতো রেকর্ড গড়েছেন।

অ্যান্ডারসন প্রথম পেসার হিসেবে এই কীর্তি গড়েছেন, তবে প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে নন। তার আগে টেস্ট ক্রিকেটে ৩৫ হাজার কিংবা এর চেয়ে বেশি বল করেছেন আরো তিনজন, তবে সবাইই স্পিনার। তালিকার প্রথম তিনজন শ্রীলঙ্কার মুত্তিয়া মুরালিধরন, ভারতের অনীল কুম্বলে এবং অস্ট্রেলিয়ার শেন ওয়ার্ন।

ইনজুরি শঙ্কায় মাথে নামা নিয়েই শঙ্কা ছিল জিমির

মুরালি অ্যান্ডারসনের চেয়ে প্রায় দশ হাজার বল বেশি করেছেন, ৮০০ উইকেট নিয়ে ক্যারিয়ার শেষ করা এই শ্রীলঙ্কান ক্যারিয়ারে বল করেছেন ৪৪,০৩৯টি। বাকি দুজনই ৪০ হাজারের গন্ডি পেরিয়েছেন, ৪০,৮৫০টি বল করেছেন অনিল কুম্বলে আর ৪০,৭০৫টি বল করেছেন শেন ওয়ার্ন। এই চারজন বাদে ৩০ হাজার বল করার রেকর্ড আছে ওয়েষ্ট-ইন্ডিজের বিখ্যাত পেসার কোর্টনি ওয়ালশের, করেছেন ৩০,০১৯টি বল। ৩০ হাজার বল করার রেকর্ডের দ্বারপ্রান্তে আছেন অ্যান্ডারসনের বোলিং পার্টনার স্টুয়ার্ট ব্রড। টেস্ট ক্রিকেটে তিনি করেছেন ২৯ হাজার ৮৬৩টি বল।

২০০৩ সালের ২২ মে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক হয় অ্যান্ডারসনের। দ্বিতীয় টেস্টের আগে খেলেছেন ১৬৩ ম্যাচ, ২৬.৬ গড়ে উইকেট নিয়েছেন ৬২১টি। ইংল্যান্ডের সর্বকালের সেরা উইকেটশিকারি অ্যান্ডারসন আবার টেস্ট ইতিহাসের তৃতীয় সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img