২৪ জুন ২০২৪, সোমবার

থাকছে ‘আম্পায়ার্স কল’, ডিআরএসে তিন বদল

- Advertisement -

‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়ে বিতর্ক পুরনো, দিন কয়েক আগে বিরাট কোহলি আইসিসির এই নিয়মকে বলেছিলেন বিভ্রান্তকর, শুধু কোহলি না মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাবের (এমসিসির) বেশ কিছু সদস্যের ধারণা, ‘আম্পায়ার্স কল’ দর্শকের দ্বিধায় ফেলছে। আইসিসির ভাবনায় তাই ভালোভাবেই ছিল বিতর্কিত ‘আম্পায়ার্স কল’ নিয়ে নতুন করে ভাবার। বৃহস্পতিবার আইসিসির সভা শেষে জানানো হয়েছে, থাকছে ‘আম্পায়ার্স কল’, তবে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমে (ডিআরএস) আনা হয়েছে ৩ বদল।

আইসিসির ক্রিকেট কমিটির প্রধান অনিল কুম্বলে নিশ্চিত করেছেন, ‘আম্পায়ার্স কল’ বাতিল হচ্ছে না। মাঠে আম্পায়ারদের হাতে কিছুটা হলেও যাতে ক্ষমতা থাকে, চাইছে আইসিসি। সেটা ঠিক রাখতে থাকছে ‘আম্পায়ার্স কল’।

ডিআরএসে ৩ বদলে হয়তো প্রভাব পড়বে মাঠের খেলায়। ৩ টা নিয়মই একটু জটিল, চেতেশ্বর পূজারার উদাহরণ দিয়ে একটি নিয়ম বুঝানো যাক, ভারতীয় এই ব্যাটসম্যান ব্যাট রাখে প্যাডের পেছনে, পেছন থেকে ব্যাট সামনে আনার আগে যদি বল প্যাডে লাগে, সেক্ষেত্রে পুজারা শট খেলার চেষ্টা করেছে কিনা, সেটা ফিল্ডিং টিমের জন্য বোঝা কষ্টকর। নতুন নিয়মে ফিল্ডিং টিম এক্ষেত্রে আম্পায়ারের সাহায্য নিতে পারবে।

পূজারা কি শট খেলার চেষ্টা করেছেন?

এর আগে স্ট্যাম্পের খানিক নিচে বল পজিশন থাকলেও সেটাকে স্ট্যাম্প মিসিং হিসেবে বিবেচনা করা হতো। নতুন নিয়মে হিটিং পজিশন ‘টপ অব দ্য স্ট্যাম্প’।

রান হয়েছে না হয়নি?

আইসিসির নিয়মের অন্য বদলটি হচ্ছে, ‘অল ফিল্ড আম্পায়ার কল’,  ব্যাটসম্যান সঠিকভাবে রান সম্পূর্ণ করেছেন কিনা অর্থাৎ শট রানের ক্ষেত্রে চাইলে এখন মাঠের আম্পায়ার থার্ড আম্পায়ারের সাহায্য নিতে পারবে।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img