১৫ জুলাই ২০২৪, সোমবার

দেশিরা ব্যর্থ, বিদেশিদের ব্যাটে খুলনাকে হারাল সিলেট

- Advertisement -

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে খুলনা টাইগার্সের বিপক্ষে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। মোহাম্মদ মিঠুনের দলের হয়ে ৫২ বলে ৬১ রানের ইনিংস খেলে জয়ের নায়ক হ্যারি টেক্টর।

খুলনার দেওয়া ১৫৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে সিলেটকে দারুণ শুরু এনে দেন সামিত প্যাটেল ও হ্যারি টেক্টর। দুর্দান্ত দুটি ছক্কা মেরে ইনিংসের শুরুটা করেছিলেন প্যাটেল। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি তিনি। নাহিদুল ইসলামকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড উইকেটে এভিন লুইসের হাতে ধরা পড়েছেন।

তবে সিলেটকে জয়ের পথেই রাখেন টেক্টর। তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত ও মোহাম্মদ মিঠুন। ৫২ বলে ৬১ রান করে টেক্টর ফিরলে শেষ দুই ওভারে সিলেটের প্রয়োজন ছিল ১৯ রান। রুবেল হোসেনের করা ১৯তম ওভারেই ম্যাচ শেষ করে দিয়েছেন রায়ান বার্ল।

এর আগে টসে জিতে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে এনামুল হক বিজয়ের অপরাজিত ৬৭ ও হাবিবুর রহমান সোহানের ৪৩ রানে ভর করে ১৫৩ রান সংগ্রহ করে খুলনা টাইগার্স।

টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বিজয়। ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসের শুরুটাও ভালো করেছিল খুলনা। এভিন লুইস প্রথম ওভারে দুই বাউন্ডারি মেরে দারুণ কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তবে ইনিংস বড় করতে পারেননি তিনি। ১০ বলে ১২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন।

আরেক ওপেনার বিজয় খেলেছেন দেখেশুনে। সিলেটের বোলারদের সামনে টাইগার্স অধিনায়ক ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাটিং করেছেন। ৫১ বলে ফিফটির দেখা পান তিনি। শেষ পর্যন্ত .. বলে … রান করে অপরাজিত থাকেন বিজয়। তিনে নেমে দারুণ খেলেছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব। ১৬ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় করেছেন ২৪ রান।

মাহমুদুল হাসান জয় তেমন কিছু করতে পারেননি। তবে হাবিবুর রহমান সোহান করেছেন আক্রমণাত্মক ব্যাটিং। প্রথম ১৫ বলে মাত্র ৪ রান করেছিলেন সোহান। এরপর সিলেটের বোলারদের উপর চড়াও হয়েছেন। বেনি হাওয়েলের এক ওভারে মেরেছেন ২ ছক্কা। পরে মেরেছেন আরও একটি ছক্কা। শেষ বলে রান আউট হওয়ার আগে ৩০ বলে করেছেন ৪৩ রান। তার আগে বিজয়ের সাথে গড়েছেন ৬৭ বলে ৯৯ রানের জুটি।

সিলেটের হয়ে ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে একটি উইকেট শিকার করেছেন সানজামুল ইসলাম। এছাড়াও একটি করে উইকেট নিয়েছেন সামিত প্যাটেল ও বেনি হাওয়েল।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img