২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

নানা নাটকীয়তার ম্যাচে ব্রাজিলের জয়; অক্ষুন্ন টেবিলের শীর্ষস্থান

- Advertisement -

কোপা আমেরিকার গ্রুপ পর্বে নিজেদের সবচেয়ে কঠিন প্রতিপক্ষ কলম্বিয়ার সাথে ২-১ গোলে জিতেছে ব্রাজিল। ১০ মিনিটে পিছিয়ে পড়ার পর রবার্তো ফিরমিনো এবং ক্যাসেমিরোর গোলে জয় পায় ব্রাজিল। এই জয়ে ৩ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের শীর্ষস্থান অক্ষুন্ন রাখলো ব্রাজিল।

কোপা আমেরিকা ২০২১ এর “বি” গ্রুপে নিজেদের সবচেয়ে কঠিন ম্যাচে কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামে ব্রাজিল। প্রথম দুই ম্যাচে বড় জয় পাওয়া ব্রাজিলের এই ম্যাচেও জয়ই প্রত্যাশিত ছিল।আত্মবিশ্বাসী ব্রাজিলের জন্য খেলায় ধাক্কা হয়ে আসে ম্যাচের ১০মিনিটের গোল। ব্রাজিল খেলায় প্রভাব বিস্তার করার আগেই ম্যাচে লিড নিয়ে নেয় কলম্বিয়ানরা। ব্রাজিলের নিয়মিত গোলকিপার অ্যালিসন বেকারের অনুপস্থিতিতে এদিন বারের নিচে দাঁড়ান উইভার্টন। উইভার্টনকে দর্শক বানিয়ে জুয়ান কুয়াদার্দোর অ্যাসিস্টে চমৎকারভাবে ‘বাইসাইকেল শটে’ বল জালে জড়ান লুইস ডিয়াজ। ম্যাচের শুরুতেই গোল খাওয়া ব্রাজিল যেনো মানসিকভাবেও কিছুটা পিছিয়ে পড়ে। প্রথমার্ধের বাকি সময় গোলের তেমন কোনো বড় সুযোগ তৈরি করতে পারেনি তিতের শিষ্যরা। কলম্বিয়ার গোলমুখে ব্রাজিলের কোনো আক্রমণ আলোর মুখ না দেখায় কলম্বিয়ার সাথে ০-১ গোলে পিছিয়ে থেকেই স্তাদিও নিলটন সান্তোসে বিরতিতে যায় ব্রাজিল।

টানা ৬ম্যাচ পর গোল খাওয়া ব্রাজিলের হুঁশ ফেরে বিরতির পর। সমতায় ফেরার জন্য একের পর এক আক্রমণ দাগে ‘সেলেসাওরা’। ম্যাচের ঘন্টা পার হওয়ার পরের ঠিক ১০মিনিট যেনো একটি ঝড়ই বয়ে যায় কলম্বিয়া রক্ষণের ওপর। দশ মিনিটে অন্তত ৩টি গোলের সুযোগ তৈরি করে ব্রাজিল৷ কিন্তু কখনো ‘অফ টার্গের্ট’, কখনো স্ট্রাইকারদের ব্যর্থতা আবার কখনো গোলবার ব্রাজিলকে গোল বঞ্চিত করে। ৬৮ মিনিটে নেইমারের বল গোলবারে লেগে ফিরে এলে এবারের কোপায় নিজের ৩নম্বর গোল পাওয়া হয়নি ব্রাজিল অধিনায়কের। গোলের দেখায় ব্রাজিলের ৭৮ মিনিটের অপেক্ষার অবসান হয় দুই বদলি খেলোয়াড় রেনান লোদি ও রবার্তো ফিরমিনোর যুগলবন্দীতে। বামদিক থেকে লোদির মাপা ক্রসে মাথা ছুঁইয়ে ব্রাজিলকে গোল এনে দেন লিভারপুল ফরোয়ার্ড।

এই গোল নিয়েও নাটকিয়তার শেষ ছিলনা রিও ডি জেনিরিওতে।কলম্বিয়ার গোলরক্ষক ডেভিড ওসপিনা রেফারিকে গোলের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। রেফারির শরীরে লেগে বল ব্রাজিলের পায়ে গেলেও খেলা কেন থামানো হয়নি সে প্রশ্নে রেফারি খুব একটা ভ্রুক্ষেপ করেননি। উলটো ম্যাচের ৮১মিনিটে হলুদ কার্ড দেখেন ওসপিনা। ৭৮ মিনিটের গোল এবং গোলের বৈধতা নিয়ে প্রশ্নে রেফারির সাথে কলম্বিয়ানদের বাগবিতন্ডায় খেলা বন্ধ থাকায় নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর এদিন ১০ মিনিট অতিরিক্ত সময় দেওয়া হয়। ম্যাচ থেকে পুরো ৩পয়েন্ট আদায় করার এই সুযোগ ব্রাজিল দল হাতছাড়া করেনি। অতিরিক্ত ১০মিনিটের দশম মিনিটে নেইমারের নেয়া কর্নার শটে হেড দিয়ে ব্রাজিলের জয় নিশ্চিত করেন ক্যাসেমিরো। আরও ৩মিনিট খেলা চলার পর অবশেষে ১০৩ মিনিটের খেলায় ২-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে ব্রাজিল।

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img