NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

পেসবান্ধব উইকেটে স্পিনারদের হাত ধরে দিনসেরা বাংলাদেশ

- Advertisement -

পেসসহায়ক উইকেট হলেও বাংলাদেশের ভরসা সেই স্পিনারেই। সাকিব আল হাসান এবং মেহেদি হাসান মিরাজ, দুই স্পিনারের ঘুর্নি জাদুতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তৃতীয় দিন নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। হারারে স্পোর্টস ক্লাবে একমাত্র টেষ্টে তৃতীয় দিনশেষে শক্ত অবস্থানে বাংলাদেশ। তৃতীয় দিনশেষে  দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৭ রান। বাংলাদেশের লিড ২২৯ রান। ২০ রান নিয়ে অপরাজিত সাদমান ইসলাম, ১৪ রান করে তার সঙ্গী সাইফ হাসান।

পেসবান্ধব উইকেটে জিম্বাবুয়ের পেসাররা যেখানে ছড়ি ঘুরিয়েছেন, উল্টো চিত্র বাংলাদেশ শিবিরে। জিম্বাবুয়েকে ২৭৬ রানে অলআউট করার পেছনে পেসারদের শিকার মাত্র এক উইকেট। সেটিও নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ। আর অপর পেসার ইবাদত হোসেন চৌধুরী যেন এক ধুসর পান্ডূলিপি। তাসকিন ব্যাটে রান করেছেন, গুরুত্বপুর্ন সময়ে উইকেট এনেছেন সঙ্গে তুলেছেন গতির ঝড়। আর কী ব্যাট কী বল, ইবাদত ছিলেন দুটো ক্ষেত্রেই ব্যর্থ।

১ উইকেটে ১১৪ রান নিয়ে দিন শুরু করেছিল জিম্বাবুয়ে । আগেরদিন যেখান থেকে শুরু করেছিলেন জিম্বাবুয়ের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান অভিষিক্ত তাকুয়ানশে কাইতানো এবং অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলর। এই দুজনের দৃঢ়তায় প্রথম সেশনে মাত্র ২৬ ওভারে জিম্বাবুয়ে যোগ করে আরও ৯৫ রান। ঐ ২৬ ওভারে বাংলাদেশের একমাত্র প্রাপ্তি ব্রেন্ডন টেইলরের ফিরে যাওয়া। মিরাজের বলে সাধারণ এক শটে ৮১ রান করে আউট হন জিম্বাবিয়ান ক্যাপ্টেন। মাত্র ৫৮ বলে টেস্ট ক্যারিয়ারে ১১তম এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে এটি তৃতীয় ফিফটি ।

প্রথম সেশনে হতাশ করলেও দ্বিতীয় সেশনে স্বরুপে ফিরেছিল টাইগাররা। পুরো সেশনে জিম্বাবুয়ে তুলতে পেরেছিল মাত্র ৪৫ রান।  চা বিরতিতে যাওয়ার আগে জিম্বাবুয়ের বোর্ডে রান ৫ উইকেটে ২৫৪। সাকিবের জোড়া শিকারের সঙ্গে তাসকিনের এক উইকেটে সেশনটা নিজেদের করে নিয়েছিল বাংলাদেশ।  এক পাশে তখনও অবিচল ছিলেন ওপেনার কাইতানো। তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম অর্ধশতক।

চা বিরতি থেকে ফিরে স্পিন ভেল্কি দেখাতে শুরু করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। কাইতানোকে উইকেটকিপার লিটন দাশের ক্যাচ বানিয়ে শুরু, এরপর একে একে ফিরিয়েছেন ডোনাল্ড তিরিপানো, ভিক্টর নিওয়াচি এবং ব্লেসিং মুজারাবানিকে।  ফলে ৫ উইকেটে  ২৬১ রান থেকে মুহুর্তেই জিম্বাবুয়ে গুটিয়ে যায় ২৭৬ রানে। রিচার্দ এনগারাভাকে আউট করে তুলির শেষ আঁচড় টানেন সাকিব আল হাসান।  সাকিব মিরাজ দুজনেই দিয়েছেন ৮২ রান করে, দুজনে ঝুলিতে পুড়েছেন ৯টি উইকেট।দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে সাবধানী ব্যাটিং শুরু করেন দুই ওপেনার সাদমান ইসলাম এবং সাইফ হাসান। শেষ পর্যন্ত  কোনো উইকেট না হারিয়েই দিনশেষ করে বাংলাদেশ।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img