২৩ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার

পোর্তো বাস পার্ক করলেও গোল করবে জুভেন্টাস

- Advertisement -

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মঙ্গলবার রাতে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে জুভেন্টাস-পোর্তো। নকআউটের ড্রতে জুভেন্টাসের বিপক্ষে যখন পোর্তোর নাম লটারিতে উঠেছিল, তখন হয়তো মনে মনে বেশ খুশি হয়েছিল জুভেন্টাস। অথচ নকআউট পর্বের প্রথম লেগের পর, পর্তুগালের সেই ক্লাবটিই এখন তুরিনের ওল্ড লেডির গলার কাঁটা। কারণ ওই একটাই, পোর্তোর বিপক্ষে প্রথম লেগের ম্যাচে হেরেছিল রোনালদোরা, ২-১ গোলে।

গোল এগ্রিগেটের হিসেবে পোর্তোকে এক গোলে হারালেই কোয়ার্টার ফাইনালে চলে যাবে জুভেন্টাস। খুব স্বাভাবিকভাবেই
তুরিনে দ্বিতীয় লেগের আগে জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী হেড কোচ আন্দ্রেয়া পিরলো বলেছেন, ‘’প্রথম পর্বের ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ সময় একটি গোল হজম করায় শেষ পর্যন্ত হারতে হয়েছে। তারপরও আমরা লড়াই থেকে ছিটকে যাই নি। মঙ্গলবারের ম্যাচে যদি খেলোয়াড়দের যথেষ্ট মনোযোগ থাকে, ম্যাচ জেতা খুব একটা কঠিন হবে না”

পিরলোর কথায় আত্মবিশ্বাসের সুর থাকাটা অবশ্যই জুভেন্টাস সমর্থকদের জন্য ভালো ব্যাপার কিন্তু মনে রাখতে হবে, গত তিন বছরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে দু’বারই ঘরের মাঠে হেরেই প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে গিয়েছিল জুভেন্টাস, ২০১৭-১৮ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদ আর ২০১৮-১৯ মৌসুমে আয়াক্সের বিপক্ষে। তাই শঙ্কা নেই, এমন কথা বলা যাবে না।  তুরিনের মাঠে আগের ঘটনাগুলোর পুনরাবৃত্তি হবে না বলেই আশাবাদী পিরলো।

চোট থেকে উঠে এরই মধ্যে দলে ফিরেছেন  হুয়ান কুয়াদ্রাদো, আর্থাররা। যদিও পাওলো দিবালা ইনজুরির কারণে মাঠে নামতে পারবেন না। আক্রমণ ভাগে তাই রোনালদোর সঙ্গী হতে পারেন আলভারো মোরাতা। বাংলাদেশ সময় রাত ২টায় শুরু হওয়া এই ম্যাচে পোর্তো যদি পুরো ডিফেন্সিভ ফুটবল খেলে তাহলে বিপদে পড়তে পারেন রোনালদোরা।

সেক্ষেত্রে করনীয় সম্পর্কে জুভেন্টাস কোচ বলেছেন ‘‘পোর্তো যদি ওদের রক্ষণের সামনে বাসও দাঁড় করিয়ে দেয়, সেটাও আমাদের অতিক্রম করতে হবে। ম্যাচটা আমাদের জিততেই হবে, কারণ  অন্য রাস্তা খোলা নেই। মঙ্গলবার আমাদের কোনও ভুল করা চলবে না’’

পোর্তোর মাঠে ৮২ মিনিটে মূল্যবান এক অ্যাওয়ে গোল নিয়ে মাঠ ছেড়েছিল রোনালদোরা। আর ওই একটা গোলই হয়ে আছে জুভেন্টাসের লাইফ লাইন। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে শেষ ১৩ ম্যাচে মাত্র ৬ গোল হজম করেছে জুভেন্টাস। আর সিরি’আতে নিজেদের মাঠে শেষ সাত ম্যাচের প্রতিটিতে গোল করেছে অন্তত দুটি করে। পারফরম্যান্স আর ফর্ম; এই দুটো যদি আত্মবিশ্বাসের খোরাক হয়, তাহলে এফসি পোর্তোর বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসী হয়েই মাঠে নামবে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর জুভেন্টাস।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img