২ মার্চ ২০২৪, শনিবার

প্যারিসে ‘মিনি আপসেট’ ঘটাতে চায় বায়ার্ন মিউনিখ!

- Advertisement -

সোজা কথা বায়ার্ন মিউনিখকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনাল খেলতে হলে কমপক্ষে ২-০ ব্যবধানে জিততে হবে পিএসজির মাঠে গিয়ে। যেটা সম্ভব আবার কঠিনও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অসংখ্য উদাহরণ আছে প্রথম লেগে হেরে দ্বিতীয় লেগে নাটকীয় প্রত্যাবর্তনের। বাভারিয়ানরাও এমনটা করে দেখিয়েছে আগে। ছয় বছর আগে পোর্তোর কাছে প্রথম লেগ হারের পর দ্বিতীয় লেগে ৬-১ ব্যবধানে জিতেছিলো বায়ার্ন মিউনিখ। ওটাও ছিলো কোয়ার্টার ফাইনাল পর্ব। প্রত্যাবর্তনের আরেকটি নতুন গল্প লেখার চ্যালেঞ্জ এখন জার্মান জায়ান্টদের সামনে।

মঙ্গলবার রাত ১টায় গতবারের দুই ফাইনালিস্টের লড়াই। সেবার শিরোপার জন্য প্রতিদ্বন্দ্বতা এবার শেষ চারের আগেই একটা দলের বিদায়।

প্রথম লেগে মূলত ব্যবধান গড়ে দেন পিএসজির দুই তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে এবং নেইমার। একজন জোড়া গোল করেন অন্যজন জোড়া গোলে অবদান রাখেন। ৩-২ ব্যবধানে প্রথম লেগ জিতে ইতিমধ্যেই সেমিফাইনালের সুবাতাস পাচ্ছে এমবাপ্পে-নেইমাররা।

পিএসজির কাছে হারের ধকল কাটাতে পারেনি বায়ার্ন। যার রেশ ছিলো বুন্দেসলিগাতেও। অখ্যাত ক্লাব ইউনিয়ন বার্লিনের বিপক্ষে ঘরের মাঠে হোঁচট খেয়েছে বাভারিয়ানরা। ১-১ গোলে ড্র করে হতাশা আরো বাড়িয়েছে হ্যানসি ফ্লিকের দল। ঠিক উল্টোটা পিএসজি। বায়ার্নকে হারিয়ে নিজেদের লিগেও আছে জয়ের ধারায়। স্ট্রাসবার্গকে শনিবারের ম্যাচে ৪-১ গোলে হারিয়েছে পচেত্তিনো শিষ্যরা।

অবশ্য ঘরের মাঠের ম্যাচ বলে কিছুটা চিন্তা থাকবে পিএসজি কোচের। শেষ ষোলোয় বার্সেলোনার মাঠে ন্যু ক্যাম্পে ৪-১ গোলের বড় জয় পেয়েছিল পিএসজি। কিন্তু নিজেদের মাঠে করেছিল ১-১ ড্র। অ্যাওয়ে ম্যাচে ভালো করলেও সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের মাঠে বিবর্ণ পারফরম্যান্স ফরাসিদের।

এই ম্যাচ দিয়ে বায়ার্ন দ্বিতীয় দল হিসেবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে শততম ম্যাচ খেলতে যাচ্ছে। এমন ম্যাচকে কোচ-ফুটবলাররা রাঙ্গাতে চাইবেন নিশ্চই। প্যারিস জয়টা কঠিন হবে মুখে বললেও অন্তরে বিশ্বাস হারাচ্ছেন না বায়ার্নদের কোচ হ্যানরি ফ্লিক।

আমরা জানি কমপক্ষে দুই গোল করতে হবে। এটা কঠিন অ্যাসাইনমেন্ট, কিন্তু ফুটবল খেলায় এমন কঠিনকে সহজ করে নিতে হয়। আমরা প্যারিসে আপসেট ঘটাতে চাই, আর এমন কিছু ঘটাতে পারলে মহা আনন্দের উপলক্ষ তৈরী হবে

অবশ্য এগিয়ে থেকে নির্ভার থাকতে পারছেন না পিএসজি কোচ পচেত্তিনো। নাটকীয় কিছু হওয়ার সম্ভাবনাকে উড়িয়ে দিচ্ছেন না।

আমার মতে যে কোন কিছুই হতে পারে। বায়ার্ন মিউনিখ বর্তমানে পৃথিবীর সেরা দলের একটি। তাদের সমীহ করছি কিন্তু আমাদেরও বিশ্বাস আছ নিজেদের শক্তি সম্পর্কে। আমা জানি ম্যাচ জিতার জন্য কি করতে হবে আমাদের।

ইনজুরি সমস্যা-

বায়ার্ন মিউনিখ: লেভানডফস্কি, কস্তা, সোলা, তোলিসো, জেনাব্রি (অসুস্থ)

পিএসজি: বার্নাত, ইকার্দি, কারজাওয়া, মার্কিনিয়োস

সম্ভাব্য লাইনআপ:

বায়ার্ন মিউনিখ: নয়্যার, পাভার্দ, বোয়েটিং, হের্নান্দেজ, ডেভিস, কিমিচ, আলবা, সানে, মুলার, কোমান, চুপো-মোটিং

পিএসজি : নাভাস, দাগবা, দানিলো, কিমপেম্বে, দিয়ালো, গিয়ায়ে, পারেদেস, ড্রাক্সলা, ডি মারিয়া, এমবাপ্পে, নেইমার

একই সময় নিরপেক্ষ ভেন্যু সেভিয়াতে মুখোমুখি হবে চেলসি এবং পোর্তো। এই ম্যাচে বাজির দর চেলসির দিকে ঝুকে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। ২-০ গোলে এগিয়ে ব্লুজরা। সাম্প্রতিক ফর্ম ইংলিশ ক্লাবকে চাঙ্গা রেখেছে। টমাস টুখেলের অধীনে ১৭ গেমসে মাত্র একটাতে হার। তাছাড়া এবারের চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৯ ম্যাচের মধ্যেই সাতটাতেই ক্লিনশিট।

অতীত পরিসখ্যাংনে তারা আরো বেশি উদ্বুদ্ধ হতে পারে। নক আউট পর্বে প্রথম লেগ জিতে এ পর্যন্ত তারা দশ বারের মধ্যে  ৮ বারই পরের রাউন্ডে উঠেছে চেলসি। ওমন পরিসংখ্যানে দেখে পোর্তোকে নিজেদের ভাগ্যের উপরই ছেড়ে দিতে হবে ম্যাচটাকে। পর্তুগিজরা মহানাটকীয় কিছু করতে পারলেই হয়তো পরের রাউন্ডের টিকিট আশা করতে পারবে।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img