৬ ডিসেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

ফাইনালে খুলনার প্রতিপক্ষ চট্টগ্রাম

- Advertisement -

ফাইনালে উঠার লড়াইয়ে চট্টগ্রামের কাছে পাত্তা পেলোনা ঢাকা। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ফাইনালে খুলনার প্রতিপক্ষ হয়েছে গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম। মুশফিকদের বিপক্ষে সহজ জয়ের ব্যবধানটা গড়ে দেয় চট্টগ্রামের বোলাররা। পুরো টুর্নামেন্টে ধারবাহিক মোস্তাফিজ এই ম্যাচেও উজ্জল। ৩ উইকেট নেন এই পেসার। আরেক বাঁ-হাতি শরিফুলও করেছেন হিসেবে বোলিং। ৪ ওভারে ১৭ রান দিয়ে নিয়েছেন দুই উইকেট।

টস জয়ী ঢাকা ব্যাটিং অর্ডারে আনে পরিবর্তন। সাব্বির রহমানের সঙ্গে ওপেনিংয়ে নামানো হয় মুক্তার আলীকে। কিন্তু কাজে লাগেনি এই টোটকা। দুই ওপেনার বিদায় নেন ১৯ রানের মধ্যেই। ভরসা দেখিয়েছিলেন মুশফিক-ইয়াসির। নাসুম আহমেদের সঙ্গে বাজে আচরণের প্রভাব মুশফিকের ব্যাটে। সমালোচনার জবাব আসেনি ব্যাট থেকে। ২৫ রানে থেমেছেন।

ধারাবাহিক পারফরমার ভয়ংকর হয়ে উঠার আগেই ইয়াসিরকে ফিরিয়েছেন মোস্তাফিজ। তার সংগ্রহ মুশির চেয়ে এক রান কম। হাত খোলে মারার চেষ্টা করেও ইনিংস বড় হয়নি আল আমিনের। ২৫ রানে তার বিদায়ে ঢাকার পরাজয়টা লেখা হয়ে যায় তখনই।

সহজ জয় তুলে নিতে অবশ্য তাড়াহুড়ো করেনি চট্টগ্রামের ব্যাটসম্যানরা। উদ্বোধনী জুটি থেকে আসে ৪৪ রান। সৌম্যের রান আউটে জুটি ভাঙ্গে। লিটন ৪০ আর সৌম্য করেন ২৭ রান। পরে অধিনায়ক মিঠুন ধীরগতির ইনিংস খেলেন। ৩৫ বলে ৩৪ রান করে আউট হন। ১১৭ রান তুলতে ১৯ ওভার এক বল খেলে চট্টগ্রাম। ম্যাচ সেরা মোস্তাফিজ। খুলনা-চট্টগ্রাম ফাইনাল শুক্রবার।

স্কোর: বেক্সিমকো ঢাকা ১১৬ (মুশফিক ২৫, আল আমিন ২৫, ইয়াসির ২৪) মোস্তাফিজ ৩/৩২, শরিফুল ২/১৭

গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম ১১৭/৩ ( লিটন ৪০, মিঠুন ৩৪, সৌম্য ২৭) মুক্তার ১/২৮, আল আমিন ১/৪

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img