৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার

বাতিলের খাতায় এশিয়া কাপ

- Advertisement -

এশিয়া কাপ আয়োজন নিয়ে নাটকতো কম হয় না, এই ঘটনা নিয়মিত। কোথায়, কবে এশিয়া কাপ হবে সেটা ঠিক করতেই নাজেহাল অবস্থা এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি)। করোনা পরিস্থিতিতে অনেক খেলাই পিছিয়েছে, নিউ নরমালের সাথে মানিয়ে নিয়ে আবার মাঠেও ফিরতে শুরু করেছে। ব্যতিক্রম শুধু এশিয়া কাপ। করোনা যেকোনো সময়ের থেকেই এখন কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে, তবুও বাতিল এশিয়ান ক্রিকেটের এবারের আসর।

এশিয়া কাপ মূলত অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল গত বছর পাকিস্তানে। সেই আসর পিছিয়েছে করোনার কারণে। চলতি বছরে জুনে শ্রীলঙ্কায় ছিল নতুন সূচি। সেটাও হয়ে গেল বাতিল। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের প্রধান নির্বাহী অ্যাশলি ডি সিলভা জানিয়ে দিয়েছেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে এশিয়া কাপ আয়োজন  সম্ভব নয়। পরবর্তী ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর ছাড়া এশিয়া কাপ আয়োজন কঠিন বলেও ইঙ্গিত দিয়েছেন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটের এই কর্মকর্তা।

দক্ষিণ এশিয়ার করোনা ভাইরাসের প্রকোপের তীব্রতাই মূলত নতুন করে ভাবিয়েছে শ্রীলঙ্কাকে। দেশটিতে যাত্রাবাহী বিমান চলাচলে চলছে দশ দিনের নিষেধাজ্ঞা। দেশটির ক্রিকেট দল অবশ্য এখন অবস্থান  করছে বাংলাদেশে। পরিকল্পনা অনুযায়ী ২৩ মে থেকে শুরু হওয়ার কথা ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। ৩টি ম্যাচই ওয়ানডে সুপার লিগের অন্তর্ভুক্ত।

করোনা মোকাবেলায় শুরু থেকেই শ্রীলঙ্কা ছিল প্রশংসিত। কোয়ারেন্টিন ইস্যু নিয়ে গোলযোগে বাংলাদেশের সে-দেশে সফরই হয়ে গিয়েছিল স্থগিত। তবুও  নিরাপত্তা নিয়ে কোনো আপস করেনি দ্বীপ দেশটা।  কদিন আগেই টেস্ট সিরিজ খেলতে শ্রীলঙ্কা গিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে এশিয়া কাপ আয়োজনের প্রশ্নে, ‘হ্যাঁ’ বলতে পারেনি শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড। সামনেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর কথা, এশিয়া কাপও ছিল ওই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেই।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img