NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১২ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার

বিদায়ের পথে রাজস্থান

- Advertisement -

সাকিব আল হাসানের কলকাতার সাথে কি রাজস্থানের ম্যাচটা মুস্তাফিজুর রহমানদের জন্য আনুষ্ঠানিকতাই হতে যাচ্ছে মাত্র? নাকি ঘটতে পারে কোনো মিরাকল! একটা মিরাকলের স্বপ্ন অবশ্য এখনও দেখতে পারে টাইগার সমর্থকরা। মুম্বাইয়ের বিপক্ষে ম্যাচটার যে বাকি আছে এখনও একটা ইনিংস! দলটা মুম্বাই বলেই হয়তো মিরাকল হওয়ার সম্ভাবনাটাও কম। মাত্র ৯১ রান তাড়া করতে পারবে না রোহিত শর্মার দল, এটা বিশ্বাস করাটাই বরং কঠিন।

এমন উল্লাসে বেশ কয়েকবার মেঁতেছে মুম্বাই

বরাবরের মতোই শুরুটা দেখেশুনে করেছিলেন দুই ওপেনার এভিন লুইস এবং যশস্বী জয়সওয়াল। ২৭ রানে প্রথম উইকেট পড়ার পর দ্বিতীয় উইকেটের পতন হয়েছে ৪১ রানে। লুইসের ২৪ রানের পাশাপাশি জয়সওয়ালের ব্যাট থেকে এসেছে ১২ রান। এরপরেই ছন্দপতন; দলীয় ৫০ রান করতে করতেই প্যাভিলিয়নের পথে সাঞ্জু স্যামসন, শিভম দুবে এবং গ্লেন ফিলিপস। রাহুল তেওয়াটিয়াকে নিয়ে ডেভিড মিলার কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করলেও স্কোরবোর্ডে যোগ করতে পেরেছেন ২১ রানই। ১২ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন তেওয়াটিয়া; দলের শেষ ভরসা হয়ে পিচে থাকা মিলার ফিরেছেন ব্যক্তিগত ১৫ রানে, দলের অষ্টম ব্যাটসম্যান হয়ে। নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে চেতন সাকারিয়ার ব্যাট থেকে এসেছে ৬ রান।

পরিকল্পনা পরো ইনিংস জুড়েই কাজে লাগিয়েছে রোহিতের দল

দলের শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে ব্যাটিংয়ে মুস্তাফিজ। ট্রেন্ট বোল্টের করা চার নাম্বার বলটাকে মিড অফের ওপর দিয়ে যেভাবে বাউন্ডারী ছাড়া করলেন, দেখে কে বলবে ইনি বোলার! পুরো ইনিংসে দুইটি ছক্কাই হয়েছে মাত্র। কাকতালীয়ভাবে প্রথমজন এবং শেষজনের ব্যাট থেকেই এসেছে ছক্কা দুইটি; এভিন লুইস আর ফিজের ব্যাটে। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে রাজস্থানের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ৯০; ফিজের ব্যাট থেকে এসেছে ৮ রান। ১৪ রানে ৪টি উইকেট নিয়েছেন নাথান কোল্টার-নাইল; নিশামের সংগ্রহ ১২ রানে ৩ উইকেট।

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img