৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার

বিশ্বকাপের ধারাভাষ্যে স্যামি, স্টেইন ও ওয়াটসন

- Advertisement -

শেন ওয়াটসন নাহয় বেশকিছুদিন আগে অবসর নিয়েছেন। তবে পুরো একটি প্রজন্মকে গতির ঝড়ে মাতিয়ে রাখা ডেল স্টেইন অবসর নিলেন, খুব বেশিদিন আগের তো কথা নয়। আবার এইতো সেদিনই ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে মাঠ মাতাতে দেখা যেত ড্যারেন স্যামিকে, ২০১৬ তে সর্বশেষ আসরেই তো ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে তিনি উঁচিয়ে ধরেছিলেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শিরোপা!

কিন্তু এই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ যখন শুরু হবে, তখন খেলার মাঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজের জার্সিতে স্যামির উপস্থিতির বদলে যখন কমেন্ট্রি বক্স থেকে ভেসে আসা তাঁর ক্যারিবিয়ান উচ্চারণে রসিয়ে রসিয়ে দেওয়া ধারাভাষ্য শুনবেন, যখন স্টেইন বা ওয়াটসনকে দেখবেন সাউথ আফ্রিকা বা অস্ট্রেলিয়ার খেলা চলাকালীনও গম্ভীর মুখে খেলার নিরপেক্ষ ও পুঙ্খানুপুঙ্খ বিশ্লেষণ করতে, মন কি অজান্তেই কেমন করে উঠবে না? মনে হবে না- ক্রিকেটে সময় কতো দ্রুতই না বয়ে যায়?

এমনটিই হতে যাচ্ছে। বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে ধারাভাষ্য প্যানেলে বসেছে যে তারার মেলা- তাতে নামীদামী ও অভিজ্ঞ ধারাভাষ্যকারদের সাথে নতুন তিনজন তারকা হিসেবে যুক্ত হতে যাচ্ছেন ড্যারেন স্যামি, শেন ওয়াটসন ও ডেল স্টেইন। স্যামি এর আগেও এদিক সেদিক টুকটাক ধারাভাষ্য দিলেও, ওয়াট্টো ও স্টেইনের জন্য এটিই হতে যাচ্ছে ধারাভাষ্যকক্ষে অভিষেক।

এই বিশ্বকাপের ধারাভাষ্যকারদের তালিকায় আরো রয়েছেন নাসের হুসেইন, মাইক আথারটন, মার্ক নিকোলাস, হার্শা ভোগলে, সুনিল গাভাস্কার, মুরালি কার্তিক, ইয়ান বিশপ, অ্যালান উইলকিন্স, নিয়াল ও’ব্রায়েন, রাসেল আর্নল্ড, ড্যানি মরিসন, বাজিদ খান, সাইমন ডৌল, প্রেস্টন মমসেন, পমি এমবাংওয়া ও বাংলাদেশ থেকে আতাহার আলী খান। নারী ধারাভাষ্যকার হিসেবে রয়েছেন ভারতের আঞ্জুম চোপড়া ও গ্রিসের নাটালি জার্মানোস।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img