১৭ জুলাই ২০২৪, বুধবার

বৃথা গেল মুমিনুলের লড়াই, সিলেট টেস্টে ৩২৮ রানে হারল বাংলাদেশ

- Advertisement -

সিলেট টেস্টে তৃতীয় দিন শেষেই কার্যত হার দেখেছিল বাংলাদেশ। তৃতীয়দিনের শেষ সেশনেই অবিশ্বাস্য ব্যাটিং ধ্বসে বড় পরাজয়ের অপেক্ষায় ছিল নাজমুল হোসেন শান্তর দল। চতুর্থদিনে শ্রীলঙ্কার অপেক্ষা বাড়িয়েছেন শুধু মুমিনুল হক। বাঁহাতি এ ব্যাটারের অপরাজিত ৮৭ রানের কল্যাণে শুধু হারের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে বাংলাদেশ। প্রথম টেস্টে ৩২৮ রানে জিতেছে শ্রীলঙ্কা।

তৃতীয়দিন শেষ সেশনে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে নেমে মুমিনুলের সাথে দিনটা পার করে দিয়েছিলেন তাইজুল ইসলাম। কিন্তু প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সেরা ব্যাটার চতুর্থদিন বেশিক্ষণ টিকতে পারেনি। কাসুন রাজিথার রাউন্ড দ্য উইকেটে করা বলে এলবিডব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন তিনি। রিভিও নিয়েও বাঁচতে পারেননি তাইজুল। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ১৫ বলে ১ বাউন্ডারিতে করেছেন ৬ রান।

৮৭ রানে অপরাজিত ছিলেন মুমিনুল হক

মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে এরপর জুটি গড়ার দিকে মনোযোগ দিয়েছিলেন মুমিনুল। দুজনের ৬৬ রানের জুটিতে শুধুমাত্র হারের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে বাংলাদেশ। রাজিথার বলে ক্যাচ দিয়ে মিরাজ ফিরলে ভাঙে সেই জুটি। প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে মিরাজের ব্যাট থেকে এসেছে ৫০ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৩৩ রান।

উইকেটে আসার পর থেকে মুমিনুলকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে গেছেন শরীফুল ইসলাম। টাইগার পেসারের ৪২ বলে ইনিংসে কোনো বাউন্ডারি না থাকলেও পরিস্থিতি অনুযায়ী সেই ব্যাটিংয়ের মাহাত্ব অনেক। ৬ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে মুমিনুলের সাথে গড়েছেন ৪৭ রানের জুটি। যা দ্বিতীয় ইনিংসের বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের জুটি।

প্রথম ইনিংসে দারুণ ব্যাটিং করলেও দ্বিতীয় ইনিংসে গোল্ডেন ডাক মেরে ফিরেছেন খালেদ আহমেদ। শেষ উইকেট জুটিতে নাহিদ রানাকে সঙ্গে নিয়ে ১৮ রান তুলেছেন মুমিনুল। শেষ পর্যন্ত ৮৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ৫টি উইকেট শিকার করেছেন কাসুন রাজিথা। ৩টি উইকেট নিয়েছেন বিশ্ব ফার্নান্দো। লাহিরু কুমারা নিয়েছেন ২টি উইকেট।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img