৬ অক্টোবর ২০২২, বৃহস্পতিবার

ব্যাটসম্যানদের অফ ফর্ম নিয়ে একেবারেই চিন্তিত নন রিয়াদ

- Advertisement -

মুশফিকুর রহিম শেষ কবে টি-টোয়েন্টিতে রান করেছেন এটা সম্ভবত গবেষণার বিষয়। ওমান ও আবুধাবিতে তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচেও ব্যাট হাতে ব্যর্থ বাংলাদেশের মিঃ ডিপেন্ডেবল। নাইম শেখ ওমান ‘এ’ দলের বিপক্ষে একটি ফিফটি করে এরপরের দুই ম্যাচেই ব্যাট হাতে চরম ব্যর্থ। বড় রান না করা এক বিষয়, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নাইম খেলেছেন ১৯ বলে ১১ রানের ইনিংস। টি-টোয়েন্টিতে একজন ওপেনারের কাছ থেকে এমন ইনিংস তো রীতিমতো ‘অপরাধ’।

মুশফিকের অফফর্ম চলছেই

অবশ্যই টিম ম্যানেজমেন্টের চোখ এড়ায়নি এই দুজনের সাম্প্রতিক ফর্ম, অবশ্যই নিজেদের মধ্যে আলোচনা ও নেটে সমস্যা নিয়ে কাজ করাও চলছে। কিন্তু আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে বারংবার এই দুজনের ফর্ম নিয়ে প্রশ্ন করা হলেও রিয়াদ প্রকাশ করলেন না কোন উদ্বেগ। বরং ব্যাটসম্যানদের ফর্ম নিয়ে নির্ভারই দেখা গেল তাঁকে।

বিশেষ করে নাইম শেখের ‘ডট বল খেলার প্রবণতা’ নিয়ে প্রশ্নটি তো বলা যায় উড়িয়েই দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক।

“নাইমের ব্যাটিং নিয়ে আমি বিন্দুমাত্র ভাবিনা। দুই একটি ডটবল তো সবাই খেলে, আমিও খেলি, সাকিব-মুশফিকও খেলে। তার সামর্থ্যে পূর্ণ আস্থা রয়েছে আমাদের”- বলেছেন রিয়াদ

নাইম শেখও ওপেনিংয়ে হারিয়ে খুঁজছেন নিজেকে

১৯ বলে ১১ রানের ইনিংসে ‘দুই একটি ডট বল’ খেলেছেন কিনা নাইম সেটি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে আর প্রশ্ন না তোলা হলেও মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে প্রশ্ন করা হলো দুইদফা। এবং এই দুইদফায়ও সতীর্থের পূর্ণ সমর্থনে উচ্চকিত হলো রিয়াদের গলা। তিনি মনে করেন মুশফিকের ফর্মে ফেরা একেবারেই সময়ের ব্যাপার।

“মুশফিক আমাদের জন্য অনেক মূল্যবান একজন ব্যাটসম্যান। তবে ব্যাটসম্যানদের খারাপ সময় আসে। তবে তার ক্যালিবার নিয়ে আমাদের সন্দেহ নেই। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আপনি প্রতিদিন রান করতে পারবেন না। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে আপনি অনুশীলনে মৌলিক কাজগুলো ঠিকঠাক করছেন কিনা। হোমওয়ার্ক করছেন কিনা। মুশফিক কঠোর পরিশ্রম করছে। এবং তার ফর্মে ফিরে আসা মাত্র এক ম্যাচের ব্যাপার।”

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের মূল সমস্যার জায়গা পাওয়ার হিটারের অভাব। তবে রিয়াদ বললেন তিনি নাকি পাওয়ার হিটার তত্ত্বেই বিশ্বাস করেন না।

“পাওয়ার হিটার কারা? কিরন পোলার্ড, ক্রিস গেইল বা আন্দ্রে রাসেলরাই তো? এমন ব্যাটস্ম্যান কয়টি দলে রয়েছে? আপনি কেন উইলিয়ামসনকে দেখুন, সে পাওয়ার হিটার নয় কিন্তু বেশ স্কিলফুল একজন হিটার। এমন ব্যাটসম্যান পাওয়া কিন্তু কঠিন নয়। তাই আমরা পাওয়ার হিটিংয়ের চেয়ে ‘স্কিল হিটিং’য়ে বেশি জোর দেই।”

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে ২০০৭ এর পর থেকে কোন জয় নেই বাংলাদেশের। এবার প্রথম পর্ব পেরিয়ে সুপার টুয়েলভে সেই ব্যর্থতার শেকল ভাঙ্গা যাবে কিনা, এমন প্রশ্নের উত্তরে অবশ্য রিয়াদের কন্ঠে ঝড়ল প্রত্যয়।

“দেশ ছাড়ার আগেই যা বলেছি, এবার কিছু লক্ষ্য রয়েছে আমাদের। বেশ কিছু বাধা পার করতে চাই। তবে আপাতত আমাদের লক্ষ্য প্রথম রাউন্ডটা ভালোভাবে পার করা। এরপর মূল পর্বে যতবেশি সংখ্যক ম্যাচ জয়। তবে আমরা ‘হার্ড ক্রিকেট’ খেলতে এসেছি। প্রথম ম্যাচ থেকেই ‘হার্ড ক্রিকেট’ খেলব”

‘বি’ গ্রুপে প্রথম ম্যাচে রবিবার বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। অপর দুই প্রতিপক্ষ ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি। প্রতিপক্ষদের সবাইই সহযোগী সদস্য। অর্থাৎ ‘বড়ভাই’ বাংলাদেশের বিপক্ষে তাদের হারানোর কিছুই নেই, তবে বাংলাদেশের হারানোর সবকিছুই আছে। এই প্রসঙ্গে রিয়াদ সেই পুরনো ‘কোন দলকেই হালকাভাবে নিচ্ছি না’  জাতীয় কথাই বললেন।

 

 

 

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img