৬ ডিসেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

মাহেদির ব্যাটে একশ পেরোলো বাংলাদেশ

- Advertisement -

চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে বাংলাদেশ। ২০ ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে তুলতে পেরেছে ১০৪ রান; যা এই সিরিজে সর্বনিম্ন। সিরিজে প্রথমবারের মতো জিততে হলে অজিদের প্রয়োজন ১০৫ রান।

শুরুতেই একটি ছক্কা হাকালেও ইনিংস বড় করতে পারেননি সৌম্য

শনিবার চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতেও টসে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় টাইগার অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। অস্ট্রেলিয়া দলে দুইটি পরিবর্তন থাকলেও, অপরিবর্তিত দল নিয়েই মাঠে নামে টাইগাররা।

বাংলাদেশের হয়ে ইনিংসের সূচনা করতে নামেন দুই ওপেনার সৌম্য সরকার এবং মোহাম্মদ নাইম শেখ। পুরো টুর্নামেন্টেই ওপেনিংয়ে ভালো সূচনা এনে দিতে পারেননি সৌম্য-নাইম, তাদের  সর্বোচ্চ জুটিটি হয়েছে ১ম টি-টোয়েন্টিতে; ১৫ রানের। এরপরেও চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতে তাদের উপরেই আস্থা রেখেছে ম্যানেজম্যান্ট।

দুর্দান্ত হ্যাজলউড

কিন্তু চতুর্থ টি-টোয়েন্টিতেও সৌম্য পারেননি ম্যানেজম্যান্টের আস্থার প্রতিদান দিতে। ৮ রান করেই ফিরেছেন প্যাভিলিয়নে। তৃতীয় ওভারে টার্নারকে একটা ছক্কা হাকালেও পরের ওভারেই হ্যাজলউডের করা অফস্ট্যাম্পের বাইরের শর্ট লেংথ বলটাকে পুল করতে গিয়ে  ক্যাচ তুলে দিয়েছেন কাভারে দাড়ানো ক্যারির হাতে। প্রথম দুই ওভারেই ২১ রান তোলা বাংলাদেশ পাওয়ারপ্লের ছয় ওভার শেষে স্কোরবোর্ডে তুলতে পেরেছে মাত্র ৩০ রান।

আজ সাকিবকেও দেখা যায়নি সেরা ছন্দে

পুরো টুর্নামেন্টে ব্যাট হাতে ছন্দে থাকা সাকিবকেও  দেখা যায়নি পুরোনো ছন্দে। দলের স্কোরবোর্ডেও পরেছে এর প্রভাব। ৯.৪ ওভারে সাকিব যখন হ্যাজলউডের  বলে ওয়েডকে ক্যাচ দিয়ে ফিরছিলেন তখন তার নামের পাশে ১৫ রান, খেলেছেন ২৬টি বল। ১০ ওভার শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ২ উইকেট হারিয়ে ৪৮ রান।

এগারতম ওভারে প্রথমবারের মতো মিচেল সুইপসনের হাতে বল তুলে দেন অজি অধিনায়ক ম্যাথু ওয়েড। অ্যাডাম জাম্পার বদলি হিসেবে চতুর্থ টি-টোয়েন্টিকে দলে নেয়া হয়েছে সুইপসনকে। এবং, এসেই সুইপসনের বাজিমাত। নিজের প্রথম ওভারের শেষ দুই বলে ড্রেসিং রুমে ফিরিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক রিয়াদ এবং উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহানকে। রিয়াদ সুইপ করতে গিয়ে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পরেছেন, সোহান বুঝতে পারেননি গুগলিটাই।

বল হাতে সুইপসন পেয়েছেন ৩টি উইকেট

১৫তম ওভারে বল করতে এসে আফিফকে নিয়ে একটা জুটি গড়ে তোলার চেষ্টা করা নাইমকেও প্যাভিলিয়নে ফিরিয়েছেন সুইপসন। ২৮ রান করে সুইপসনের গুগলিতে পরাস্ত হয়ে নাইম ক্যাচ তুলে দিয়েছেন ওয়েডের হাতে। ৪ ওভার শেষে মিচেল সুইপসনের সংগ্রহ ১৩ রান দিয়ে ৩টি উইকেট।

১৬তম ওভারে অ্যাস্টন আগারের করা প্রথম বলেই ছক্কা্ হাকিয়েছেন আফিফ। প্রতিশোধটাও নিয়েছেন  আগার। চতুর্থ বলে বিপদজনক হয়ে উঠতে শুরু করা আফিফকে করেছেন আউট। আগারের করা বলটাকে সুইপ করে ছক্কা হাকাতে গিয়ে ডিপ মিড উইকেটে দাড়ানো মইজেস হেনরিকসের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে ব্যক্তিগত ২৭ রান করেই ড্রেসিংরুমে ফিরতে হয়েছে আফিফকে। এরপরে শেখ মাহেদি ১৬ বলে ২৩ রানের ঝড়ো একটা ইনিংস খেললেও ২০ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১০৪। অজিদের হয়ে ৩টি করে উইকেট পেয়েছেন অ্যান্ড্রু টাই এবং সুইপসন, ২টি পেয়েছেন হ্যাজলউড।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img