১৭ জুলাই ২০২৪, বুধবার

মুমিনুলের সুরে সুর মেলালেন শান্ত

- Advertisement -

ঘরোয় ক্রিকেট ও টেস্ট ম্যাচের মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাৎ বলে গতকাল (মঙ্গলবার) মন্তব্য করেছিলেন মুমিনুল হক। বাঁহাতি এ ব্যাটারের সাথে একই সুরে সুর মিলিয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্তও। টেস্ট ক্রিকেটে যে চ্যালেঞ্জগুলো থাকে তা ঘরোয়া ক্রিকেটে থাকে না বলে মনে করেন তিনি।

বুধবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট হারের পর সংবাদ সম্মেলনে টাইগার অধিনায়ক বলেন, “প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট, হ্যাঁ, যদি উইকেটটা আরেকটু ভালো হয়, যে রকম কন্ডিশনে আমরা খেলব, যে চ্যালেঞ্জগুলো আমরা সামলাবো, তা হলে ভালো। কিন্তু আমরা যে চ্যালেঞ্জগুলো এখানে পাই, তা আমরা প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে পাই না। আমরা খেলোয়াড়েরাই হয়তো…আমরা আমাদের জায়গা থেকে যদি কিছু জিনিস যুক্ত করতে পারি, যে চ্যালেঞ্জটা আমরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সামলাচ্ছি, তাহলে অবশ্যই ভালো। হ্যাঁ, যত ম্যাচ খেলব ততো উন্নতির কিছু না কিছু জায়গা থাকেই”

ঘরোয়া ও টেস্ট ক্রিকেটের মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাৎ বলে মন্তব্য করেছিলেন মুমিনুল হক

টেস্ট ক্রিকেটের প্রতি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড অনেক বড় বিনিয়োগ করেছে। ক্রিকেটারা মোটা অঙ্কের ম্যাচ ফি পান, টেস্ট ক্রিকেটারদের বেড়েছে বেতনও। তারপরও আশানুরুপ ফলাফল এনে দিতে পারছেন না ক্রিকেটাররা। এতে ক্রিকেটারদের খারাপ লাগা কাজ করে কিনা এমন প্রশ্নেরও জবাব দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক।

শান্ত বলেন, “অপরাধবোধের জিনিসটা এই শব্দটা ব্যবহার করতে চাই না। কিন্তু প্রতিটা খেলোয়াড়ের খারাপ করার পরে ওই খারাপ লাগাটা কাজ করে। এবং কীভাবে আরও ভালো করতে পারি দলের জন্য, ওই জিনিসগুলো সবসময় প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ের মধ্যে থাকে। একটা খেলোয়াড় আরেকটা খেলোয়াড়ের সঙ্গে আলাপ করে। এটার সঙ্গে এমন না যে ম্যাচ ফি আমি বেশি পেলাম বা কম পেলাম। এগুলো নিয়ে চিন্তা খুব একটা খেলোয়াড়রা করে না। কিন্তু প্রত্যেকটা খেলোয়াড় শতভাগ চেষ্টা থাকে যে কীভাবে আমি দলকে ভালো কিছু দিতে পারে”

ভাল করতে ক্রিকেটাররা চেষ্টার কোনো কমতি রাখেন না বলে মনে করেন শান্ত। টাইগার অধিনায়কের ভাবনা প্রত্যেকটা ক্রিকেটার শতভাগ দেওয়ার চেষ্টা করে।

 

 

 

 

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img