১ ডিসেম্বর ২০২২, বৃহস্পতিবার

মুশফিক-সাইফউদ্দিনে মোহামেডানের বিপক্ষে আবাহনীর বড় জয়

- Advertisement -

মিরপুরে রোববার ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগের দিনের শেষ ম্যাচে মোহামেডানকে ৬০ রানে হারিয়েছে আবাহনী। চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের ম্যাচে আবাহনীর জয়ের বড় নায়ক ৫৭ রান করা মুশফিকুর রহিম।

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

টসে জিতে আবাহনীকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় মোহামেডান । এই ম্যাচ দিয়ে টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো মাঠে নেমেছেন লিটন দাস। নিজের প্রিয় পজিশনেই ব্যাট করেছেন, ইনিংস উদ্বোধন করতে নেমে চতুর্থ ওভারেই ফিরেছেন, মাত্র ৪ রান করে।

লিটন দাস আউট হলেও তার সঙ্গী মুনিম শাহরিয়ার ছিলেন সাবলীল। দেড়শর বেশি স্ট্রাইক রেটে আবাহনীর বড় সংগ্রহের ভিত গড়ে দিয়েছেন এই ডানহাতি ওপেনার। মাত্র ২৭ বলে ৪৩ করে সাজঘরে ফিরেছেন। তার আগেই তিন ছক্কায় ২৭ করে আউট হয়েছেন নাজমুল হোসেন শান্ত।

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

বাকিটা সময় শুধুই চলেছে মুশফিকুর রহিম শো। এই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের কল্যানে চলতি ডিপিএলের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ আবাহনীর। ৩২ বলে মুশফিক অপরাজিত ছিলেন ৫৭ রানে। পাঁচ নম্বরে নেমে নাঈম শেখ করেন ২৪, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত করেন ৭ বলে ১৪। ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে আবাহনীর বোর্ডে সংগ্রহ ১৯৩। মোহামেডানের হয়ে মাত্র ১৯ রানে তিন উইকেট নেন রুয়েল মিয়া।

জবাবে বড় লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে সাইফউদ্দিনের প্রথম ওভারে রানের খাতা খোলার আগেই দুই উইকেট হারায় মোহামেডান। তৃতীয় বলে ফেরেন অভিষেক মিত্র, এক বল পর মুশফিকের ক্যাচ বানিয়ে সাইফ ফেরান শামসুর রহমান শুভকে। প্রাথমিক ধকল সামলে উঠতে পারেনি মোহামেডান। ইরফান শুক্কুর চেষ্টা করেছিলেন, তবে ২৭ রান করে আউট হন মোসাদ্দেকের বলে। একবল পর আবার মোসাদ্দেকের আঘাত, রানের খাতা খোলার আগেই ফিরেছেন নাদিফ চৌধুরী।

এরপর মাহমুদুল হাসান এবং আবু হায়দার রনি চেষ্টা করলেও তা শুধুই ব্যবধান কমিয়েছে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে মোহামেডান বোর্ডে রান তুলেছে ১৩৩। ৬০ রানের বড় পরাজয়ের ম্যাচে মোহামেডানের বড় পাওয়া হয়তো  রনির অপরাজিত ৫৭। আবাহনীর পক্ষে ১৩ রানে দুই উইকেট নেন মোসাদ্দেক হোসেন।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img