২৪ জুন ২০২৪, সোমবার

মুস্তাফিজের বাজে দিন সত্ত্বেও রাজস্থানের জয়; ব্যর্থ গায়কোয়াড়ের সেঞ্চুরি

- Advertisement -

হাঁকিয়েছিলেন এই আইপিএল মৌসুমের প্রথম সেঞ্চুরিটি; তবে রাজস্থান রয়েলস ব্যাটসম্যানদের সম্মিলিত ব্যাটিং ঝড়ে ম্লান হয়ে গেলো চেন্নাই সুপার কিংস ওপেনার রুতুরাজ গায়কোয়াড়ের কীর্তি। অপরদিকে ঝড়ো শুরুর পর শিভাম দুবের পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংসের সুবাদে চেন্নাইকে ৭ উইকেটে হারিয়ে শেষ চারের আশার আলো এখনো মিটিমিটি জ্বালিয়ে রাখলো মুস্তাফিজুর রহমানের দল। মাত্র ১৭.৩ ওভারে চেন্নাইয়ের দেওয়া ১৯০ রানের লক্ষ্যে পৌঁছেছে রাজস্থান।

ব্যাটিং সহায়ক উইকেটেও টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল রাজস্থান। চেন্নাইয়ের ইনিংসটা বলতে গেলে পুরোটাই ‘রুতুরাজ গায়কোয়াড় শো’। ব্যাট করেছেন একদম শেষ বল পর্যন্ত। ওপেনিং জুটিতে ফাফ ডুপ্লেসির সাথে ৪৭ রান যোগ করার পর মঈন আলীর সাথেও গড়েন ৫৭ রানের জুটি। এরপর রবীন্দ্র জাদেজার সাথে তাঁর শেষ ২২ বলে ৫৫ রানের ঝড়ো জুটির কল্যাণেই ২০ ওভার শেষে ১৮৯ রানের পাহাড় গড়ে চেন্নাই। জাদেজা খেলেছেন ১৫ বলে ৩২ রানের ক্যামিও।

ফিফটি করতে ৪৩ বল লাগিয়েছিলেন গায়কোয়াড়; সেঞ্চুরি পূর্ণ করতে নিয়েছেন আর মাত্র ১৭ বল। সেঞ্চুরি ছুঁতে পারবেন কিনা তা নিয়ে অবশ্য শঙ্কা ছিল। ইনিংসের শেষ বল খেলতে যখন স্ট্রাইক নেন, তখন তাঁর ব্যক্তিগত রান ৯৫*। মুস্তাফিজুর রহমানের লেংথ বলে লেগসাইড দিয়ে যে ছক্কাটা মেরে শতক ছুঁলেন গায়কোয়াড়, এই  আইপিএল মৌসুমেরই সবচেয়ে বড় ছক্কা হওয়ার দৌড়ে খুব ভালোমত এগিয়ে থাকবে সেটি।

এদিকে বল হাতে একেবারেই ছন্নছাড়া একটি দিন কাটিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভারে ৫১ রান হজম করেছেন ফিজ। তাঁর মুখোমুখি হওয়া ৮ বলে ১৭ রান নিয়েছেন গায়কোয়াড়, শেষ ওভারে গায়কোয়াড়ের ওই ছক্কার আগে প্রথম চার বলে ওয়াইডসহ ১৬ রান দিয়েছেন জাদেজাকেও।

১৯০ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে রাজস্থানও পাল্টা জবাব দেয় খুব ভালোমতই। দুই ওপেনার এভিন লুইস ও যশস্বী জাইসওয়াল শুরু করেন পাওয়ার হিটিং ও স্ট্রোকপ্লের সম্মিলিত ঝড়। মাত্র ৩২ বলে তাঁরা তুলে ফেলেন ৭৭ রান। এভিন লুইস ১২ বলে ২৭ রানের ক্যামিও খেলে ফাইন লেগে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলেও ১৯ বলে ফিফটি তুলে নেন জাইসওয়াল।

Image
মাত্র ১৯ বলে ফিফটি করেছেন যশস্বী জাইসওয়াল

ইনিংস বড় না করতে পেরে জাইসওয়াল বিদায় নিলেও, শিভাম দুবে থামতে দেননি রাজস্থানের মরুঝড়। অধিনায়ক সঞ্জু স্যামসনের সাথে তৃতীয় উইকেট জুটিয়ে ৮৯ রান যোগ করেন দুবে; যেখানে স্যামসনের অবদান মাত্র ২৪। ব্যক্তিগত ২৮ রানে স্যামসন আউট হয়ে গেলেও দলকে জিতিয়ে ফিরেছেন দুবে; খেলেছেন ৪২ বলে ৬৪* রানের অনবদ্য ইনিংস।

Image
শিভাম দুবে খেলেছেন অপরাজিত ৬৪* রানের ইনিংস

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img