১৭ জুলাই ২০২৪, বুধবার

“মুস্তাফিজ আবারও নিজের খেলাটা উপভোগ করছে”

- Advertisement -

অ্যালান ডোনাল্ড টাইগারদের পেস বোলিং কোচের দায়িত্ব ছেড়েছেন পাঁচ মাস আগেই। তবে প্রোটিয়া এই কোচ নিজে যেমন শিষ্যদের ভোলেননি, শিষ্যরাও ভোলেননি প্রিয় গুরুর কাছ থেকে দীক্ষা নেয়ার দিনগুলোর কথা। ডোনাল্ডের আমলে তাসকিন-শরীফুল-ইবাদতরা যতটা উন্নতি করেছে, পুরনো ফর্ম ফিরে পেতে মুস্তাফিজুর রহমানকে ততটাই স্ট্রাগলই করতে হয়েছে। বেশ কয়েক বছর যাবতই অফফর্মে থাকা মুস্তাকে নিয়ে তাই ডোনাল্ডের কাজ করতে হয়েছে আলাদাভাবেই।

টাইগার পেসারদের নিয়মিত খোঁজ রাখা অ্যালান ডোনাল্ড সম্প্রতি ‘ক্রিকবাজ’-কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, পুরোনো আগ্রাসী-আত্মবিশ্বাসী মুস্তাফিজকে তিনি আবারো খুঁজে পাচ্ছেন। কথা বলেছেন দ্য কাটার মাস্টারের শক্তি আর দূর্বলতা নিয়েও, পরামর্শ দিয়েছেন কীভাবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভালো করা যায়।

“বোলিং দেখে মনে হচ্ছে মুস্তাফিজ তার স্টক ডেলিভারিতে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেয়েছে। বোলিংয়ে শুধু তার গতিই নয়, বৈচিত্র্যেও ভালো করছে। ছন্দের দিক থেকে বলব, সেরা সময় কাটাচ্ছে। বেশ নিয়ন্ত্রিত লাগছে। সঙ্গে যোগ করতে চাই, বেশ সতেজ মনে হচ্ছে এবং নিজের ক্রিকেট উপভোগ করছে। নতুন বলে শুরু থেকে ছন্দ পাচ্ছে। বল ভেতরে নিতে পারছে আবার বাইরেও টেনে নিচ্ছে। এখন যেটা ও করছে সেটা সব সময় চাহিদা ছিল”-জানিয়েছেন ডোনাল্ড 

সাবেক ছাত্রের আইপিএল পারফর্ম্যান্সে খুশি ডোনাল্ড

বাংলাদেশে কাজ করার সময় মুস্তাফিজের সাথে গতি আর সুইং নিয়ে কাজ করেছিলেন ডোনাল্ড। ডোনাল্ডের মতে, এখন মুস্তা ঠিক যেভাবে বল করছে ঠিক এভাবেই দ্য কাটার মাস্টারকে দেখতে চেয়েছিলেন সাবেক কোচ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “মুস্তাফিজ যখন ভালো বোলিং করে তখন তার গতি ঠিক থাকে এবং বল দেরিতে সুইং করে। বিশ্বকাপে কিছুটা দেখাতে শুরু করেছিল কিন্তু ধারাবাহিকতা থাকেনি। কখনো না কখনো এটা হতে পারে। ট্রেনিংয়ে যখন এটা হওয়া শুরু করলো তখন আমি ও ফিজ এটা নিয়ে আরো কাজ করা শুরু করেছিলাম। আমরা স্লোয়ার বলে বাড়তি নিয়ন্ত্রণ রাখার কাজ করেছিলাম। এখন যেভাবে বোলিং করছে ঠিক সেটাই আমরা করছিলাম। তাকে দেখে মনে হচ্ছে খুব আত্মবিশ্বাস পেয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসের তাঁবুতে। তাকে দেখে ভালো লাগছে।”

সামনেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজে ভালো ফল পেতে শুধু স্লোয়ার নয়, স্টক ডেলিভারী ও গতির ওপর ভরসা রাখার পরামর্শ দিয়েছেন সাদা বিদ্যুৎখ্যাত অ্যালান ডোনাল্ড।

“আমি মনে করি সে চোখ বন্ধ করেও অফ পেস ডেলিভারী করতে পারবে। এভাবেই সে নিজেকে তৈরি করেছে। সামনের যুক্তরাষ্ট্র ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপের জন্য তাকে মনে করিয়ে দেওয়া উচিত ওখানে পেস কমিয়ে খুব বেশি সফলতা আসবে না। বরং পেস রেখে বলে লেট মুভমেন্ট করিয়ে তার বোলিং করতে হবে। শুধুমাত্র ভাবনায় যদি কাটার, স্লোয়ার থাকে তাহলে…কি বলতে চাচ্ছি বুঝতে পারছেন”-ডোনাল্ড আরও বলেন

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img