৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার

মেসিকে স্পর্শ করলেন রোনালদো…

- Advertisement -

পৃথিবী যখন প্রতিযোগিতায় অতিষ্ঠ; তখন ফুটবলপ্রেমীরা এই গ্রহের দুই ফুটবল রাজার আরো একটি মহাকাব্যিক যুদ্ধের সাক্ষী হলো, সৌদি আরবের রিয়াদের ‘কিং ফাহাদ’ স্টেডিয়ামে। লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো, একে অন্যের মুখোমুখি হলেন, দুজনই স্কোরশিটে নাম তুললেন; সেই সঙ্গে রেকর্ডের পাতা আরো একবার তছনছ হলো! যেভাবে হয়ে আসছে দেড় দশক ধরে। এলএমটেনের এক আর সিআরস্যাভেনের জোড়া গোলের পর মুখোমুখি লড়াইয়ে এখন দুজনের গোলসংখ্যা সমান ২৩টি।

তিন বছর পর, আরো নির্দিষ্ট করে বললে ২০২০ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে জুভেন্তাস-বার্সেলোনা যখন খেলেছিলো, তখনই শেষবার মুখোমুখি হয়েছিলেন লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ১৯ জানুয়ারি, ২০২৩ আবারো বিশ্ব একসাথে দেখলো ফুটবলের দুই মহারথীকে। মেসি খেলেছেন নিজ ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইন হয়ে, রোনালদোর গায়ে উঠেছিল রিয়াদের দুই সেরা ক্লাবের সম্মিলিত দল রিয়াদ একাদশের জার্সি।

কাতার বিশ্বকাপের আগে ফটোসেশনে মেসি-রোনালদো

 

পিএসজি বনাম রিয়াদ একাদশের রোমাঞ্চকর এই ম্যাচ নিয়ে মেসি-রোনালদো মুখোমুখি হয়েছেন ৩৭ বার। দুজনের মুখোমুখি দেখায়,এই ম্যাচের আগে মেসির গোল সংখ্যা ছিলো ২২; রোনালদোর একটা কম। বৃহস্পতিবার মেসির এক গোলের দিনে জোড়া গোল করে গোলসংখ্যায় মেসিকে স্পর্শ করেন রোনালদো। অ্যাসিস্ট সংখ্যায় মেসি অনেক এগিয়ে। রোনালদোর বিপক্ষে খেলা ম্যাচে মেসি যেখানে গোল বানিয়েছেন ১২টি, পর্তুগিজ সুপারস্টার মাত্র একটি!

এই ৩৭ বারের দেখায় মেসির ম্যাচ জয়ের সংখ্যা ১৭; রোনালদোর ১১। মেসির হ্যাট্রিক থাকলেও রোনালদো কখনো আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের বিপক্ষে হ্যাট্রিক করতে পারেননি। মুখোমুখি লড়াইয়ে ফ্রি কিকেও এগিয়ে আছেন মেসি, ৭ বারের ব্যালন ডি অর জয়ী ফ্রি কিক থেকে দুইবার গোল করলেও ৫ বার বর্ষসেরার মুকুট জেতা রোনালদো ফ্রি কিক থেকে এখনো গোল করতে পারেননি।

পেনাল্টিতে দুজনই আবার সমানে সমান, দুজনেরই ৭ গোল। হেড থেকে গোলে স্বাভাবিকভাবেই এগিয়ে রোনালদো; মেসির এক গোলের বিপরীতে রোনালদো হেড থেকে গোল করেছেন ২টা। কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে দুজনের গোলসংখ্যাই ৭। দেশের জার্সিতে দুজনই গোল করেছেন ১টি করে।

 

 

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img