NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ, জিতলো রোনালদো!

- Advertisement -

পুরো ম্যাচ ভালো খেললেন লিওনেল মেসি, আর বিজয়ের আনন্দে মাঠ ছাড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এই পর্তুগিজের জোড়া গোলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নিজেদের মাঠে ৩-০ গোলের লজ্জা পেয়েছে বার্সেলোনা। জুভেন্টাসের হয়ে অন্য গোলটি করেন ওয়েস্টন ম্যাককেনি।

বার্সার সাথে আগের দেখায় রোনালদো না থাকায় জুভেন্টাসকে হারতে হয়েছিলো ২-০ গোলে। এবার লক্ষ্যটা ছিলো গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি হারের প্রতিশোধটাও নেয়া। বার্সার দূর্গ ন্যু ক্যাম্পে গিয়ে পুরো পয়েন্ট নিয়ে ফেরার কাজটা বেশ ভালোভাবেই করে দেখালেন রোনালদো। জোড়া গোল পেয়েছেন পেনাল্টি থেকে।

জুভদের জয়ের পিছনে অবদানটা কোন অংশেই কম নয় অভিজ্ঞ গোলরক্ষক জানলুইজি বুফনের। তার দেয়াল ভাঙ্গতেই বার বার ব্যর্থ হয়েছেন মেসি। ৭টি শট নিয়ে একবারও ঠিকানা খুঁজে পাননি বার্সা তারকা।

 

ন্যু ক্যাম্পের নিয়ন্ত্রণটা নিতে বেশি সময় নেয়নি জুভেন্টাস। ২০ মিনিটেই বার্সাকে কোনঠাসা করে ফেলে অতিথিরা। ১৩ মিনিটেই ডিফেন্ডার রোনাল্দ আরহোর ফাউলের মাশুল গুনতে হয় বার্সেলোনাকে। ডি-বক্সে রোনালদোকে ফাউল করলে পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস। আর সেই পেনাল্টি থেকে রোনালদোই লিড এনে দেন। ইউরোপ সেরা প্রতিযোগিতায় বার্সেলোনার বিপক্ষে প্রথম গোলটাও হয়ে গেলো এই পর্তুগিজের।

৭ মিনিটের ব্যবধানে মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ম্যাককেনি। ডান পায়ের ভলিতে বার্সার জাল কাঁপান এই মিডফিল্ডার।

গোল খেয়ে বার্সাও চাপ বাড়ায় জুভদের রক্ষণে। বিরতির আগে বেশ কয়েকবার মেসি গোলপোস্টে শট নেন। কিন্তু পরাস্ত করতে পারেননি বিশ্বকাপ জয়ী গোলরক্ষক ইতালিয়ান বুফনকে।

গোল শোধতো দূরের কথা উল্টো বিরতির পর আরো পিছিয়ে পড়ে বার্সেলোনা। ৫২ মিনিটে আবারো ডিফেন্ডারের ভুল, ডি বক্সে ক্লেমোঁ লংলের হাতে বল লাগলে ভিএআরের সাহায্যে পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস। গোলের জোড়া পূর্ণ করেন রোনালদো।

মেসির ব্যর্থতার সঙ্গে ম্যাচে বারবার ভাগ্যের কাছেও ধোঁকা খেয়েছে বার্সেলোনা। বুফন নামক দেয়ালে গিয়েই যেন সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে ফিরে এসেছে। তার মধ্যে ৭0 মিনিটে বার্সেলোনার পক্ষে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি; কিন্তু গ্রিজমান অফসাইডে থাকায় সেটাও বাতিল হয়ে যায়।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে আবারও মেসিকে হতাশ করেন বুফন। ডি-বক্সের মুখ থেকে তার বাঁ পায়ের শট ঝাঁপিয়ে ঠেকান জানুয়ারিতে ৪৩ বছর পূর্ণ করার অপেক্ষায় থাকা এই ইতালিয়ান।

শেষ পর্যন্ত রোনালদো-মেসি দ্বৈরথে রোনালদোই হয়ে থাকলেন ম্যাচের নায়ক।

ছয় ম্যাচে পাঁচ জয়ে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ সেরা জুভেন্টাস। নকআউট পর্বে তাদের সঙ্গী বার্সেলোনার পয়েন্টও থাকলো ১৫।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img