২৩ এপ্রিল ২০২৪, মঙ্গলবার

রেকর্ডের পাতায় মুমিনুল-শান্তর জুটি

- Advertisement -

টেস্ট ম্যাচ অনেকটা জীবনের মতো, বাউন্সার আসলে ওয়ানডের রীতি মারো, টেস্ট বলবে লিভ করো। ৯০ মাইল বেগে ছুটে আসা বাউন্সারটা যখন উইকেটকিপারের গ্লাভসে বন্দী তখন ৪-৫ ফিট এগিয়ে উইকেটের উপর দুইটা টোকা দিয়ে বোলারের কানে ‘দ্যা নেক্সট টু সেশন ইজ মাইন, টেক মাই উইকেট, ইফ ইউ ক্যান’ বলে আসার নাম টেস্ট ক্রিকেট। পাল্লেকেল্লেতে মুমিনুল হক আর নাজমুল হোসেন শান্ত যেন সেটাই করলেন। উইকেট থাকলেন, রান করলেন, রেকর্ড বই নতুন করে লিখলো তাদের নাম।

সফরতদের মধ্য থেকে শ্রীলঙ্কায় সর্বোচ্চ রানের জুটি রস টেলর আর কেন উইলিয়ামসনের, ২৬২। সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে মুমিনুল হক আর নাজমুল হোসেন শান্তর ২৪২ রানের জুটি দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। একইসঙ্গে বাংলাদেশের হয়ে তৃতীয় উইকেটে সুর্বোচ্চ রানের জটি এই দুজনের।

রানিং বিটুইন দ্য উইকেটেও মনোযোগী দুজন

নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মুমিনুল হক দুজনই ছিলেন টেস্ট মেজাজে, ৫১৪ বল মোকাবেলা করেছেন। বলের হিসেবে বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। বাংলাদেশের হয়ে যেকোনো উইকেট জুটিতে সবচেয়ে  বেশি বল মোকেবেলা করার রেকর্ড মুশফিকুর রহিম এবং মোহাম্মদ আশরাফুলের, ৫১৮ বল।

মুমিনুল সেঞ্চুরি করেছেন, নেতৃত্বটা দিয়েছেন নাজমুল শান্তই, টেস্টে এক ইনিংসে ৩০০ বা তার বেশি বল মোকেবেলা সপ্তম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান শান্ত, অষ্টম মুমিনুল। একই কাজ তিনবার করেছেন মুশফিকুর রহিম, জাভেদ ওমর বেলিম দুইবার। প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের হয়ে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান নাজমুল হোসেন শান্তর, সর্বোচ্চ মুমিনুল হকের, ১৮১।

তৃতীয় উইকেটে রেকর্ডগড়া জুটি

তিন নম্বর পজিশনে বাংলাদেশের হয়ে দেড়শো বা তার বেশি রানের ইনিংস খেলা তৃতীয় ব্যাটসম্যান নাজমুল শান্ত। মুমিনুল হকের এই কীর্তি আছে দুই বার।

টেস্ট ক্রিকেটে যেকোনো ফলই আসতে পারে।  সেশন যায়, চা বিরতি আসে, তার আগে আবার লাঞ্চ! বিরক্তি, রোমাঞ্চ, অপেক্ষা শেষে টেস্ট ড্র। জীবনে জয়ই সবকিছু নয়, আনন্দ মাঝেমধ্যে ভাগ করে নেয়া যায় সমানভাবে। পাল্লেকেল্লে টেস্ট যদি ড্রয়ও হয় তবুও এমন সব রেকর্ডে জয়টা বাংলাদেশেরই।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img