২৮ জানুয়ারি ২০২৩, শনিবার

রোনালদোকে রিয়ালে দেখতে চান আনচেলত্তি

- Advertisement -

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর দলবদল নিয়ে জল্পনা কল্পনা যেন থামছেই না। নামটা রোনালদো বলেই হয়তো তার সম্পর্কিত প্রতিটা খবরেই ভক্তদের আগ্রহটাও থাকে আকাশচুম্বী। সংবাদমাধ্যমগুলোও কাজে লাগাচ্ছে সুযোগটাকে। প্রতিনিয়তই নতুন নতুন সব তথ্য এনে দিচ্ছে ভক্তদের সামনে; আর তাতেই সকল আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে জুভেন্টাস এই তারকা। ফ্রান্স, স্পেন, ইংল্যান্ড ও ইতালির বেশ কিছু নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যম বিভিন্ন সময়েই রোনালদোর দলবদল নিয়ে জানিয়েছে নানান রকমের কথা।  কেউ কেউ রোনালদোকে পিএসজিতে নিয়ে গেলে, কেউ নিয়ে যাচ্ছে রিয়ালে, কেউ কেউ ম্যানচেস্টার সিটিতে। পরবর্তী গন্তব্য নিয়ে একেক সংবাদমাধ্যমের একেকরকম মতামত থাকলেও, একটা জায়গায় সবাই এক মেরুতেই অবস্থান করছে। আর সেটা হল, ‘রোনালদোর দলবদল।’

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এল চিরিঙ্গিতো সোমবার রাতে তাদের এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, রিয়াল মাদ্রিদ কোচ কার্লো আনচেলত্তি রিয়ালের জার্সি গায়ে আবারও দেখতে চান ক্রিশ্চিয়ানোকে। এল চিরিঙ্গিতোর সাংবাদিক এদু আগিরে জানিয়েছেন, রোনালদোর সাথে গত কয়েকদিনে অনেকগুলো দল যোগাযোগ করেছে। এরমধ্যে একটি বিখ্যাত দল এবং সেই দলের ভীষণ জনপ্রিয় কোচ খুব আগ্রহ প্রকাশ করেছে রোনালদোর প্রতি। আর সেই কোচের নাম ‘কার্লো আনচেলত্তি।’  কিন্তু রোনালদোকে রিয়াল মাদ্রিদে আবারও দেখতে হলে কোচ চাইলেই শুধু হবে না, চাইতে হবে রিয়াল মাদ্রিদের প্রেসিডেন্ট ফ্লোরেন্তিনো পেরেজকেও।

 

এদিকে ইংল্যান্ডের নির্ভরযোগ্য সংবাদমাধ্যম স্কাই স্পোর্টস দিয়েছে চমকে দেবার মত আরেক তথ্য। মেসির পর পিএসজি নাকি চায় রোনালদোকেও দলে ভেড়াতে, আর সেটা আসছে মৌসুমেই। পর্তুগিজ তারকা জুভেন্টাসের সাথে নিজের চুক্তি এখনও নবায়ন করেননি। অনুমান করাই যায়, ইতালিতে আর নিজের ভবিষ্যত দেখছেননা তিনি। দুইয়ে দুইয়ে চার মিলাতে গেলে বোঝা যায় রোনালদোর যে যাওয়ার সম্ভাবনা আছে পিএসজিতেও। যদি কিলিয়ান এমবাপ্পে পিএসজি ছেড়ে দেয়, তখন তো তার জায়গায় একজনকে নিতেই হবে দলে। আর সেই সময়েই রোনালদোরও জুভেন্টাস ছাড়ার কথা। এমবাপ্পে চলে গেলে রোনালদোকে তো পিএসজিতে দেখা যেতেই পারে!

 

কয়েকদিন আগে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম এএস জানিয়েছে, মেসি, নেইমার এবং ক্রিশ্চিয়ানোকে একসাথে পিএসজিতে খেলতে দেখার স্বপ্নটা বহুদিন ধরেই লালন পালন করে চলেছেন পিএসজির সভাপতি নাসের আল খেলাইফি। রোনালদোর এজেন্ট হোর্হে মেন্দেস নাকি এই সবকিছুই জানেন। ৩৭ বছর বয়সে প্যারিসে এসে রোনালদো নাকি সর্বোচ্চ দুই বছরের চুক্তি করতে পারেন।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img