৩১ জানুয়ারি ২০২৩, মঙ্গলবার

শেষ দিনের নাটকীয়তার অপেক্ষায় নটিংহ্যাম

- Advertisement -

টেস্ট ম্যাচ তো এমনই হওয়া উচিত। প্রতিটা মুহুর্তেই বদলাবে রঙ, কেঁপে উঠবে দর্শকদের হৃদস্পন্দন। একদল দিনশেষে আক্ষেপে পুড়বে, আরেকদল পরের দিনের পরিকল্পনা সাজাতে ব্যস্ত থাকবে। জয়ের সুযোগ থাকবে দুদলের সামনেই। টানটান উত্তেজনার ম্যাচে স্কোর বোর্ডে একটি দলের জয় লেখা থাকলেও, দিনশেষে জয় তো টেস্ট ক্রিকেটেরই! এরকমই উত্তেজনায় পরিপূর্ণ ম্যাচ হচ্ছে ট্রেন্টব্রিজে,ভারত ইংল্যান্ডের পাঁচ ম্যাচের সিরিজের প্রথম টেস্ট। রোববার শেষদিনে ব্যাট করতে নামবে ভারত। জিততে হলে ভারতকে করতে হবে ১৫৭ রান, ইংল্যান্ডে প্রয়োজন ৯টি উইকেট।

চতুর্থ দিনে সেঞ্চুরি এসেছে রুটের ব্যাট থেকে

নটিংহ্যামে চতুর্থ দিনে হেসেছে ইংলিশ অধিনায়ক জো রুটের ব্যাট। রুটের ব্যাট থেকে এসেছে তার ব্যক্তিগত ২১ তম টেস্ট সেঞ্চুরি; প্রায় তিন বছরের মধ্যে ঘরের মাটিতে প্রথম। কিন্তু জাসপ্রিত বুমরাহর পাঁচ উইকেটের কল্যাণে রুটের সেঞ্চুরির পরও ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংস থেমেছে ৩০৩ রানেই।

ইল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন বুমরাহ। ইংল্যান্ড ৭০ রানে পিছিয়ে থেকে চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করেছিলো। রুট এসেই ভারতীয় পেসারদের উপরে চড়াও হন। মোহাম্মদ সিরাজের বলে  উইকেটরক্ষক রিশভ  পান্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ররি বার্নস। জ্যাক ক্রলিও আউট হন পান্থকে ক্যাচ দিয়েই, তবে বোলার এক্ষেত্রে বুমরাহর। বুমরাহর করা পঞ্চম স্ট্যাম্পের বলটাকে হয়তো না খেললেও পারতেন ক্রলি। ইংলিশদের শুরুর ধাক্কা সামাল দেন রুট।

‘এবার আর তোমায় উইকেট দিচ্ছিনা’ অ্যান্ডাসনকে কি এটাই বলছেন কোহলি?

রুট যখন ব্যাটিংয়ে আসেন, তখন দলের রান ৪৬। চতুর্থ দিনের শুরু থেকেই রুটকে ভাগ্য সঙ্গ দিয়েছে ।  রুটের ব্যাট থেকে স্লিপে উঠেছে ক্যাচ, কিন্তু লুফে নিতে পারেনি কেউই। আম্পায়ারে এলবিডব্লিউয়ের সিদ্ধান্তেও বেচে গেছেন রিভিউ নিয়ে। এরপর ডমিনিক সিবলিকে নিয়ে ৮৯ রানের পার্টনারশিপ গড়েন রুট, জনি বেয়ারস্টোকে নিয়ে ৪২ রানের। ব্যক্তিগত ১০৯ রান করে দলের সাত নাম্বার ব্যাটসম্যানে হিসেবে রুট যখন ড্রেসিং রুমে ফিরছেন, তখন ইংলিশদের সংগ্রহ ২৭৪ রান। এরপরেও ইংলিশরা ৩০৩ রান করতে পেরেছে মূলত শেষদিকে স্যাম কারেনের ৩২ এবং অলি রবিনসনের ১২ বলে খেলা ১৫ রানের ইনিংসটির উপর ভর করেই।

ইনফর্ম রাহুলকে ফিরিয়েছেন ব্রড

২০৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে চতুর্থ দিন শেষে ভারতীয়দের সংগ্রহ ৫২/১। একমাত্র উইকেটটি প্রথম ইনিংসে সর্বোচ্চ ৮৪ রান করা লোকেশ রাহুলের, ২৬ রান করে ব্রডের বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেছেন রাহুল। জয়ের জন্য ভারতের শেষদিনে প্রয়োজন ১৫৭ রান। পিচে সমান ১২ করে রান করে অপরাজিত রোহিত শর্মা এবং চেতেশ্বর পুজারা।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img