৭ ডিসেম্বর ২০২২, বুধবার

শেষ মুহুর্তের গোলে সুইজারল্যান্ডকে আটকালো ওয়েলস

- Advertisement -

ইউয়েফা ইউরো-২০২০ এর গ্রুপ-‘এ’ এর ম্যাচে আজারবাইজানের বাকু অলিম্পিক স্টেডিয়ামে নেমেছিলো সুইজারল্যান্ড ও ওয়েলস। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্রেল এমবোলোর গোলে এগিয়ে যায় সুইসরা। ৭৪ মিনিটে ওয়েলসকে সমতায় ফেরান কেইফার মুর। এক পয়েন্ট ভাগেই সন্তুষ্ট হতে হয় দুই দলকে।

ইউরোতে ওয়েলস এবং সুইজারল্যান্ড দুই দলেরই সেরা সাফল্য গত আসরে; ওয়েলস পৌঁছেছিল শেষ চারে, সুইসদের দৌড় থেমেছিলো রাউন্ড আব সিক্সটিনে। এবারের মোকাবেলার আগে সুইজারল্যান্ড-ওয়েলস কখোনোই কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচে ড্র করেনি। অথচ ইউরোতে দুই দল খেললো নিজেদের প্রথম ড্র ম্যাচ। সুইসরা খেলেছে ৩-৪-১-২ ফরমেশনে, ওয়েলস কোচ গ্যারেথ বেলদের খেলিয়েছেন ৪-৩-৩ পদ্ধতিতে।

প্রথমার্ধের সবচেয়ে বড় সুযোগটাই পেয়েছিলো ওয়েলস। লেফট উইং থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মিডফিল্ডার ড্যানিয়েল জেমসের ক্রসে হেড করেন কেইফার মুর। দারুণ দক্ষতায় হেড প্রতিহত করেন সুইস গোলকিপার ইয়ান সোমের। মিনিট পাঁচেক পরেই সুযোগ আসে সুইসদের সামনে, শাকিরির বাড়ানো বলে সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার ফ্যাবিয়ান শারের ফ্লিক; গোলকিপার ড্যানি ওয়ার্ডের রিফ্লেস্কে রক্ষা পায় ওয়েলস। গোল শূন্যে শেষ হয় প্রথমার্ধ।

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

বিরতি থেকে ফিরেই লিড নেয় সুইজারল্যান্ড। ইউরোতে সুইসদের শেষ চার গোলের তিন গোলই এসেছে কর্নার থেকে। আজারবাইজানেও সেই কর্নারই গোলের উৎস। সুইজারল্যান্ড এগিয়ে দেন স্ট্রাইকার ব্রেল এমবোলো। শাকিরির কর্নারে হেডে গোল করেন ক্যামেরুনে জন্ম নেয়া বরুশিয়া মনরশেনগ্লাডবাখ ফরোয়ার্ড এমবোলো।

ছবিঃ ইন্টারনেট
ছবিঃ ইন্টারনেট

ম্যাচের ৭৪ মিনিটে ওয়েলসকে সমতা এনে দেন কেইফার মুর। ওয়েলসের গোলের উৎসও সেই কর্নার, অনেকটা সুইসদের গোলেরই কার্বন কপি। জো মোরেলের কর্নার থেকে ওয়েলসের এক পয়েন্ট নিশ্চিত করেন কেইফার। ৬৪ ভাগ বলের দখল, ১৮টি গোল শট অথবা ওয়েলসের তিনগুন বেশি কর্নার পাওয়ার ফায়দা একেবারে শেষ মুহুর্তে প্রায় পেয়েই যাচ্ছিলে সুইজারল্যান্ড। বদলি ফরোয়ার্ড মারিও গ্রাভানোভিচ গোলও করেন, কিন্তু শেষ বেলায় ভিডিও অ্যাসিস্টেন্ট রেফরি বাতিল করেন সেই গোল।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img