২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, মঙ্গলবার

শেষ ম্যাচেও জিতল আফগানিস্তান!

- Advertisement -

প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের পর হোয়াইটওয়াশের স্বপ্ন দেখা টাইগার যুবাদের পরের দুই ম্যাচেই পাল্টা জবাব দিল আফগানরা। আজ (রোববার) সিলেটে সিরিজের পঞ্চম ও শেষ ওয়ানডেতে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলকে ৩ উইকেটে হারিয়ে ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ শেষ করেছে আফগানিস্তান।

চতুর্থ ওয়ানডেতে ভালো শুরুর পর ব্যাটিং ধ্বসে শেষ হয়ে গেছিলো ম্যাচ জয়ের আশা, এই ম্যাচেও টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করার পরই ব্যাটিং ধ্বসের শিকার হয় টাইগার যুবারা। ওপেনিং জুটিতে ৪৮ রান যোগ করার পর নাঙ্গেয়ালিয়া খারোতের বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে ফিরে যান মফিজুল ইসলাম। এরপর তাসের ঘরের মতো ভেঙ্গে পড়ে টাইগার ব্যাটিং। স্কোরবোর্ডে মাত্র ৮ রান যোগ করতে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আরো ৪জন ব্যাটসম্যান। যাদের তিনজনই হয়েছেন আফগান পেসার বিলাল সামির শিকার। মাত্র ১২ ওভারেই ৪৮/১ থেকে ৮২/৬ হয়ে যায় বাংলাদেশের স্কোরলাইন ।

ব্যাটিং বিপর্যয়ে বড় লক্ষ্য দাঁড়া করানোর স্বপ্ন ভেস্তে যায় টাইগার যুবাদের

এরপর গোলাম কিবিরিয়া, আবদুল্লাহ আল মামুন আর নাইমুর রহমানের ছোট ছোট অবদানে ৪৭.৪ ওভারে সবকয়টি উইকেট হারিয়ে ১৫৫ রান সংগ্রহ করতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯। ৮২ বলে ৩৭ রানের ধৈর্য্যশীল ইনিংস খেলে বাংলাদেশের পক্ষে ইনিংসে সর্বোচ্চ রান আব্দুল্লাহ আল মামুনের।

আফগান পেসার বিলাল সামি এবং স্পিনার নাঙ্গেলিয়া খারোতে নিয়েছেন ৩টি করে উইকেট। ২ উইকেট নিয়েছেন লেগস্পিনার ইজহারুল নাভিদ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেন আফগানিস্তানও। প্রথম ৫ ওভারের মধ্যেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান দু’জন আফগান ওপেনার সাবাঊন বানুরি ও সুলিমান আরবজাই। নতুন বল হাতে দুর্দান্ত বোলিং করেন টাইগার পেসার আশিকুর জামান।

নতুন বল হাতে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন পেসার আশিকুর

তবে এরপরই প্রতিরোধ গড়েন ইশাক জাজাই ও মোহাম্মদ নাজিবুল্লাহ। দুজনে গড়েন ৪৯ রানের জুটি। ১১ রান করে নাজিবুল্লাহ রানআউটের শিকার হলেও ফিফটি করেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান ইশাক জাজাই। ৭৯ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ৫২ রান করে আশিকুরের বলেই আউট হল জাজাই।

ফিফটি করে ব্যাট তুলছেন জাজাই

তবে জাজাই একপ্রান্তে দুর্দান্ত ব্যাট চালাতে থাকলেও অপরপ্রান্তে একের পর এক উইকেট পতন বাংলাদেশকে  ছোট পুঁজি নিয়েও আফগানদের আটকে ফেলার আশা দেখাচ্ছিল। তবে অধিনায়ক ইজাজ আহমেদ ও ইজাহারুল হক নাভিদের দৃঢ়চেতা ও সাবধানী ব্যাটিংয়ে লক্ষ্যের দিকে এগোতে থাকে আফগানিস্তান।

তবে শেষদিকে দুই টাইগার পেসার মুশফিক হাসান ও আশিকুর জামানের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে যদিও জমে উঠেছিল নাটক। ৪৯তম ওভারের শেষ বলে জয়ের জন্য মাত্র ৭ রান বাকি থাকতে ইজাজকে আউট করেন মুশফিক। খেলা চলে যায় শেষ ওভারে। তবে শেষ ওভারের প্রথম বলেই নাভিদের বিশাল ছক্কা সব নাটকের অবসান ঘটায়। এক বল পর এক রান নিয়ে জয়ের আনুষ্ঠানিকতা পূর্ণ করেন নাভিদ।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের এই নতুন ব্যাচের এটিই প্রথম আন্তর্জাতিক সিরিজ ছিল। সিরিজের শুরুটা দারুণভাবে হলেও শেষটা মনমতো হলো না জুনিয়র টাইগারদের। সিরিজ বাংলাদেশ জিতলেও, পরের দুই ম্যাচে জয় দুটি আফগান যুবাদের আত্মবিশ্বাসে টনিক হিসেবে কাজ করবে নিঃসন্দেহে।

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img