২৮ জানুয়ারি ২০২৩, শনিবার

শেষ হলো বাংলাদেশের ব্যর্থতায় মোড়া ‘প্রস্তুতিপর্ব’

- Advertisement -

শেষ উইকেট জুটিতে তাসকিন-মুস্তাফিজ গড়লেন ২৪ রানের জুটি। সেটি কি শুধু বাংলাদেশের হারের ব্যবধানই কি কমালো? নাকি বাংলাদেশের মূল ব্যাটসম্যানদের দিয়ে গেলো খানিকটা লজ্জাও? ‘বোলার’ তাসকিনের ১৪* রানের ইনিংসটিই যে আজকের ম্যাচে বাংলাদেশের চতুর্থ সর্বোচ্চ ইনিংস।

গ্যারেথ ডেলেনির ব্যাটিং ঝড় ও নিজেদের ব্যাটিং ধ্বসে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচটি আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৩৩ রানে হেরে গিয়েছে বাংলাদেশ। আয়ারল্যান্ডের ১৭৭ রানের জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান করতে সক্ষম হয়েছে টাইগাররা। এই নিয়ে আবুধাবিতে বিশ্বকাপের দুটি আনুষ্ঠানিক প্রস্তুতি ম্যাচেই হার দেখলো বাংলাদেশ।

টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম থেকেই বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হয় আইরিশরা। দুই ওপেনার পল স্টার্লিং ও অ্যান্ডি বলবার্নি ৪ ওভারেই তোলেন ৩৩ রান। ১৬ বলে পাঁচ বাউন্ডারিতে ২২ রান করে নাসুম আহমেদের বলে আউট হন স্টার্লিং। এরপর তাসকিন আহমেদ পরপর দুই ওভারে অ্যান্ডি বালবির্নি ও জর্জ ডকরেলের উইকেট তুলে নেন। কিন্তু একপ্রান্তে হাল ধরেন গ্যারেথ ডেলেনি। ৩৩ বলে ফিফটি করা ডেলেনি ইনিংস শেষে ৫০ বলে ৮৮* রান করে অপরাজিত ছিলেন। চার মেরেছেন ৩টি, ছক্কা ৮টি। নিস্তার দেননি বাংলাদেশের কোন বোলারকেই।

Image
আয়ারল্যান্ডের হয়ে ডেলেনি তুলেছেন ঝড়

বাংলাদেশের হয়ে সেরা বোলার তাসকিন আহমেদ। ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়েছেন এই পেসার। বেদম মার খেয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভারে দিয়েছেন ৪০ রান।

বাংলাদেশের সেরা বোলার তাসকিন

১৭৮ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে বাংলাদেশ। ০.৫ থেকে ১.২- মাত্র দুই বলের ব্যবধানে ফিরে গেছেন টাইগারদের দুজন ওপেনার। প্রথম ওভারের ৫ম বলে ক্রেইগ ইয়ংয়ের বলে ৪ বলে ৩ রান করে সাজঘরে ফেরেন নাইম শেখ। লিটন পরের ওভারেই জশ লিটলের বলে বোল্ড হয়ে ফিরে যান মাত্র ১ রানে। মুশফিক পরের ওভারেই হন ক্রেইগ ইয়ংয়ের দ্বিতীয় শিকার, আউট হওয়ার আগে করেছেন ৪ রান।

Image

এরপর সৌম্য সরকার ও আফিফ হোসেন প্রতিরোধ গড়ার সামান্য চেষ্টা করেন। দুজনে গড়েন ৪৭ রানের জুটি। তবে জুটি বড় হয়নি ১৭ রান করে বেঞ্জামিন হোয়াইটের বলে আফিফ হোসেন সাজঘরে ফেরায়।

গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও সৌম্য সরকারের ব্যাটে এসেছে রান। তবে গত ম্যাচের মতই বড় করতে পারেননি ইনিংস। ৩০ বলে ১ চার ও ২ ছক্কায় ৩৭ রান করে হন রান আউটের শিকার।

আগের ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও ছিলো ব্যাট হাতে সৌম্যের চেষ্টা

এরপর বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরানোর শেষ চেষ্টা করেন নুরুল হাসান সোহান। তবে বাকিরা কেউ সঙ্গ দিতে পারেননি; সোহানের ইনিংসও থামে ২৪ বলে ৩৮ রানে।

আয়ারল্যান্ডের হয়ে সেরা বোলার মার্ক এডের; নিয়েছেন ৩৩ রানে ৩ উইকেট।

সোহানের ব্যাটে আশা দেখছিল বাংলাদেশ

অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে এলো না একটিও জয়। কাগজে কলমে কোন প্রভাব না ফেললেও, টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাসে কি সামান্য চিড় ধরলো না?

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ 

আয়ারল্যান্ডঃ ২০ ওভার শেষে ১৭৭/৩ (ডেলেনি ৮৮*, বালবির্নি ২৫, টেক্টর ২৩*; তাসকিন ২/২৬, নাসুম ১/৩৩)

বাংলাদেশঃ ২০ ওভার শেষে ১৪৪/১০ ( সোহান ৩৮, সৌম্য ৩৭, আফিফ ১৭; এডের ৩/৩৩, লিটল ২/২২, ইয়ং ২/২১)

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img