NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১২ আগস্ট ২০২২, শুক্রবার

শোয়েব মালিকের ‘টর্নেডো’ ইনিংসে পাকিস্তানের বড় সংগ্রহ

- Advertisement -

আগেই সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিলো গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিতে যাওয়ার। সেই লক্ষ্যেই টসে জিতে ব্যাটিং করে পাকিস্তান। এবং অনেকদিন পর শোয়েব মালিকের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে প্রথম ইনিংস শেষে রানের পাহাড়ে চড়েছে পাকিস্তান।

আগের ম্যাচের দুই হাফ-সেঞ্চুরিয়ান বাবর আজম এবং মোহাম্মদ রিজওয়ান শুরুটা করেন দেখেশুনে। দ্বিতীয় ওভারে ব্র্যাড হুইলের প্রথম বলে দৌড়ে ১ রান নেয়ার সাথে সাথেই রিজওয়ান ভেঙে ফেলেন ক্রিস গেইলের রেকর্ড! টি-টোয়েন্টিতে এক বর্ষপঞ্জিকায় সবোর্চ্চ রানের মালিক এখন তিনি। ২০১৫ সালে একমাত্র টি -টোয়েন্টি ক্রিকেটার হিসেবে গেইল করেছিলেন ১৬৬৫ রান; ঐ রানটি নিয়ে রিজওয়ানের হয়েছিলো ১৬৬৬।

পাওয়ারপ্লে শেষ মেন ইন গ্রিনদের স্কোর বোর্ডে জমা হয় বিনা উইকেটে মোটে  ৩৫! তবে ব্যক্তিগত রেকর্ডের দিনকে খুব বেশি রঙিন করে রাখতে পারেনি রিজওয়ান। আগের ম্যাচের অপরাজিত ৭০ করা এই ব্যাটসম্যান হামজা তাহিরের বলে ফিরে যাওয়ার আগে ১৯ বল খেলে মাত্র ১৫ রান করেন। হামজার হিসেবী বোলিংয়ে কিছুক্ষণের জন্য রানের চাকা থিম থাকলেও দলের হাল ধরেন অধিনায়ক বাবর এবং মোহাম্মদ হাফিজ। গ্রুপ পর্বে দুর্দান্ত পারফর্ম করা বাবর এ ম্যাচেও অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন, ক্রিস গ্রিভসের বলে আউট হওয়ার আগে ৪৭ বলে তুলেছেন ৬৬ রান। এর আগে ১৯ বলে ৩১ রানের ক্যামিও খেলে  মোহাম্মদ হাফিজ ফিরে যান। তাদের জুটি থেকে আসে দলীয় সর্বোচ্চ ৫৩ রান।

এরপর শোয়েব মালিক নেমে শুরু করেন ঝড়, অনেকদিন পর ব্যাট হাতে চেনা ছন্দে দেখা গিয়েছিলো এই অভিজ্ঞ অলরাউন্ডারকে। ৩০০ স্ট্রাইক রেটে ১৮ বলে ৫৪ রানের ইনিংস খেলেন মালিক। যে ইনিংসে চার শুধু একটি, ছক্কা ছিলো ছয়-ছয়টি! শেষ ওভারের ৫ বলেই নেন ২৩ রান!

নির্ধারিত ২০ ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৮৯।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img