১৭ জুলাই ২০২৪, বুধবার

সাইফের অলরাউন্ড পারফর্ম্যান্সে শেখ জামালের দারুণ জয়

- Advertisement -

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) ম্যাচে প্রাইম ব্যাংককে ৭৩ রানের ব্যবধানে হারিয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। নুরুল হাসান সোহানের দলের দেওয়া ২৯৩ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ২১৯ রানে অলআউট হয়েছে তামিম ইকবালের দল। শেখ জামালের হয়ে ১১৫ রানের ইনিংস খেলার পাশাপাশি বোলিংয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন সাইফ হাসান।

টসে জিতে শেখ জামালকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় প্রাইম ব্যাংক। প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমে দলকে দারুণ শুরু এনে দেন সাইফ হাসান ও সৈকত আলী। দুজনেই করেছেন সাবলীল ব্যাটিং। বিশেষ করে এদিন সাইফের ব্যাটিং ছিল দেখার মত। ৫৫ বলে ৫ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৪৩ রান করা সৈকতকে ফিরিয়ে ৯১ রানের জুটি ভাঙেন রুবেল ইসলাম।

এরপর ফজলে মাহমুদ রাব্বিকে নিয়ে আবারও বড় জুটি গড়েন সাইফ। উইকেটে আসার পর থেকেই দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেছেন ফজলে মাহমুদ। সৈকতের মতো তিনিও ফিরেছেন ফিফটি মিসের হতাশা নিয়ে। রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ৬০ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় খেলেছেন ৪২ রানের ইনিংস।

শুরু থেকেই দারুণ ব্যাটিং করতে থাকা সাইফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ১০৭ বলে। এটি লিস্ট এ ক্রিকেটে ডানহাতি এ ব্যাটারের নবম সেঞ্চুরি।

১১৫ রানের ইনিংস খেলেছেন সাইফ হাসান

শেখ জামাল ২৯২ রানের সংগ্রহ পায় মূলত শেষদিকে ইয়াসির আলী চৌধুরির ২২ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ২৭ আর জিয়াউর রহমানের ৩২ বলে ২ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৩৯ রানের কল্যাণে।

প্রাইম ব্যাংকের হয়ে ১০ ওভারে ৬৪ রান দিয়ে ৩ উইকেট শিকার করেন হাসান মাহমুদ। একটি করে উইকেট নিয়েছেন রেজাউর রহমান রাজা ও রুবেল হোসেন।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভাল করে প্রাইম ব্যাংকের দুই ওপেনার তামিম ইকবাল ও পারভেজ হোসেন ইমন। চলমান ডিপিএলে তিন সেঞ্চুরি করা ইমন প্রথম থেকেই করেছেন আক্রমণাত্মক ব্যাটিং। তবে বড় ইনিংস খেলতে পারেননি তিনি। ১৭ বলে ৩ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ২২ রান করে রবিউল ইসলাম রবির বলে আউট হয়েছেন।

ইমন ফিরলেও ঠিকই দারুণ ব্যাটিং করেছেন তামিম। অবশ্য এদিন চারবার ভাগ্যের সহায়তাও পেয়েছেন প্রাইম ব্যাংক অধিনায়ক। ৫৩ বলে চলমান ডিপিএলের পঞ্চম ফিফটি তুলে নেন তিনি। সাইফকে তুলে মারতে গিয়ে সোহানকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন তামিম। তার আগে ৭০ বলে ৫ বাউন্ডারিতে করেছেন ৬৯ রান।

চলমান ডিপিএলে তামিমের পঞ্চম ফিফটি

শাহাদাত হোসেন দীপু ও জাকির হাসান শুরুটা ভাল করলেও বড় ইনিংস খেলতে পারেননি। তবে মোহাম্মদ মিঠুন চেষ্টা করেছিলেন। তার ৪৮ বলে ১ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কায় ৪২ রানের ইনিংসটি শুধু হারের ব্যবধানই কমাতে পেরেছে।

শেখ জামালের হয়ে ১০ ওভারে ৫৪ রান দিয়ে ৪ উইকেট শিকার করেছেন টিপু সুলতান। দুটি করে উইকেট নিয়েছেন সাইফ হাসান, তাইবুর রহমান ও রবিউল ইসলাম রবি।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img