NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

সাইফের ব্যাটে ধলেশ্বরের জয়

- Advertisement -

মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে  ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) সুপার লিগের খেলায় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ৬ উইকেটে হারিয়েছে প্রাইম ধলেশ্বর। ৬০ রান করে ধলেশ্বরের জয়ের নায়ক ম্যাচসেরা সাইফ হাসান।

ছবিঃ বিসিবি
ছবিঃ বিসিবি

মিরপুরে টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন ধলেশ্বর অধিনায়ক ফরহাদ রেজা। ক্যাপ্টেনের সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা প্রমান করতে সময় নেননি ধলেশ্বর বোলাররা। শেখ জামালের দুই ইনফর্ম ব্যাটসম্যান সৈকত আলী এবং মোহাম্মদ আশরাফুল ফিরেছেন দলের রান দুই অঙ্কের ঘরে পৌছানোর আগেই। সৈকতকে ফিরিয়েছেন শফিকুল ইসলাম, চতুর্থ ওভারে সেই শফিকুলের ক্যাচ বানিয়ে আশরাফুলকে ফিরিয়েছেন শরিফুল্লাহ। পরের ওভারে আবার শরিফুলের আঘাত। এবার তার শিকার তানভির হায়দার।

১১ রানেই ৩ উইকেট হারানো শেখ জামালের ইনিংস মেরামতের দায়িত্ব নেন দুই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস এবং ইলিয়াস সানি। তবে কখনোই ধলেশ্বর বোলারদের উপর ছড়ি ঘোরাতে পারেননি তারা। দশ ওভার শেষে তাদের সংগ্রহ দাড়ায় মাত্র ৪৫। রানরেট বাড়াতে মরিয়া ইলিয়াস সানিকে পরের ওভারে ফেরান সাইফ হাসান। ইনিংসের বাকিটা সময় নিজের করে নিয়েছেন রেজাউর রহমান রাজা। ইমরুল কায়েসকে দিয়ে শুরু, এরপর একে একে ফিরিয়েছেন সোহরাওয়ার্দি শুভ এবং মোহাম্মদ এনামুলকে। এই পেসার ৩ উইকেট শিকার করতে খরচ করেছেন ২৫ রান।

ছবিঃ বিসিবি
ছবিঃ বিসিবি

স্রোতের বিপরীতে শেখ জামালের সম্মান বাচিঁয়েছেন  অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহান। ইনফর্ম সোহানের ব্যাটে ছক্কার ঝলক দেখা যাচ্ছে টুর্নামেন্টজুড়েই। এদিনও ব্যাতিক্রম হয়নি। ২৪ বলে ২ ছক্কায় করেছেন ৪২। তবে সোহান আউট  হয়েছেন অদ্ভুতুড়ে উপায়ে।  ইয়াসিন আরাফাত মিশুর পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে অবস্ট্রাকটিং দ্যা ফিল্ড হয়েছেন সোহান। তবে তার ৪২ রানে ভর করে কোনোমতে লড়াই করার মতো সংগ্রহ পায় শেখ জামাল। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ রান করেন ইমরুল কায়েস। ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৩ রানেই শেষ হয় শেখ জামালের ইনিংস।  ৪ ওভারে মাত্র ১১ রানে ২ উইকেট শিকার করেন শফিকুল ইসলাম, রাজা নিয়েছেন তিন উইকেট।

১২৪ রানের ছোট লক্ষ্য, ধলেশ্বরের শুরুটাও হয়েছে সাবধানী। ওপেনার ইমরান উজ্জামান এবং তিন নম্বরে নামা ফজলে মাহমুদ রাব্বি, দুজনেই দেখেশুনে ব্যাটিং করেছেন। বিশের ঘরে পৌছে দুজনেই আউট হয়েছেন। তবে ব্যাতিক্রম ছিলেন অন্য ওপেনার সাইফ হাসান। ক্রিজে এসেই সাবলীল ব্যাটিং করেছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

ছবিঃ বিসিবি
ছবিঃ বিসিবি

ফজলে-ইমরান যখন সাবধানী ব্যাটিং করছিলেন, রানের চাঁকা সচল রাখার কাজটা করেছিলেন সাইফ হাসান। ৩ ছক্কায় ১৮০ এর বেশি স্ট্রাইক রেটে সাইফ রান করেছেন ৬০, বল খেলেছেন মাত্র ৩৩ টি। পরের কাজটা সামলেছেন শামিম পাটোয়াড়ি এবং মার্শাল আইয়ুব। শেখ জামালের হয়ে মাত্র ৭ রানে ২ উইকেট নেন মোহাম্মদ আশরাফুল । ধলেশ্বরের জয় ৬ উইকেটে।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img