৬ অক্টোবর ২০২২, বৃহস্পতিবার

সাকিব কি আবারও বেঞ্চে?

- Advertisement -

১৯ সেপ্টেম্বর মাঠে গড়িয়েছে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বিতীয় ধাপ। করোনার কারণে স্থগিত হয়েছিল আসর, তা তো সবারই জানা। স্থগিত হওয়ার আগে যেখানে ছিলেন ঠিক সেখান থেকেই শুরু করলেন সাকিব আল হাসান, বেঞ্চে থেকে। প্রথম তিন ম্যাচে সুযোগ পাওয়ার পর আর সুযোগ পাননি, সেই থেকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) সাইড বেঞ্চ আর সাকিব একে অপরের সঙ্গী। দ্বিতীয় ধাপেও তার ব্যতিক্রম নেই।

কলকাতার একাদশে সুযোগ পাওয়া সাকিবের জন্য কেন কঠিন?

২০ অক্টোবর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর মুখোমুখি হয়েছিল কেকেআর, বৃহস্পতিবার সাকিবের দলের প্রতিপক্ষ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ভিরাট কোহলির দলের বিপক্ষে ৯ উইকেটের জয়ে পর ধারণা করা হচ্ছে এ ম্যাচে ‘উইনিং কম্বিনেশন’ ধরে রাখবে কেকেআর। তাই স্বাভাবিকভাবেই সাকিবের একাদশে ঢোকা একপ্রকার অসম্ভব। সাকিবের সঙ্গে কুলদ্বীপ যাদবও আছেন সাইড বেঞ্চে।

সাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বীদের ফর্ম কেমন?

বাঁহাতি স্পিনার সাকিবের প্রতিদ্বন্দ্বীও যে স্পিনারই হবেন সেটা আর বলে দিতে হবে না। সাকিবের একাদশে ঢুকতে না পারার পেছনে বড় কারণ একাদশে থাকা স্পিনারদের দুরন্ত ফর্ম। সে ম্যাচে দলের প্রধান স্পিনার বরুন চক্রবর্তী ছিলেন দুর্দান্ত। ৪ ওভারে মাত্র ১৩ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ব্যাঙ্গালুরুকে মাত্র ৯২ রানে গুটিয়ে দিয়ে ১০ ওভার হাতে রেখে কেকেআরের ৯ উইকেটে জয়ের পেছনে বড় অবদান বরুনের। হয়েছেন ম্যাচসেরা। আরেক স্পিনার সুনীল নারিনও ভালো করেছেন। উইকেট পাননি, তবে ৪ ওভারে খরচ করেছেন মাত্র ২০ রান। আইপিএলে সাকিব সাধারণত একটু নিচের দিকেই ব্যাটিং করে থাকেন। অর্থাৎ ৫, ৬ কিংবা ৭ নম্বরে। কলকাতার ঐ জায়গা তিনটি দীনেশ কার্তিক, অধিনায়ক ইয়ন মরগান এবং অ্যান্দ্রে রাসেলের দখলে। অর্থাৎ সাকিবকে দলে জায়গা পেতে লড়াই করতে হবে সবদিকেই।

কেমন করছে কেকেআরের বিদেশিরা?

ব্যাঙ্গালুরুর বিপক্ষে এবারের আইপিএলে প্রথমবারের মতো সুযোগ পেয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের পেসার লোকি ফার্গুসন। দলে সুযোগ পেয়েই রীতিমতো বল হাতে আগুন ঝড়িয়েছেন এই ডানহাতি পেসার। ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রানে নিয়েছেন ২ উইকেট। আরেক বিদেশি স্পিনার নারিনের পারফর্ম্যান্সের গল্প তো আগেই হলো। কেকেআর শিবিরের ‘অটো চয়েস’ অ্যান্দ্রে রাসেল, কেন তিনি অটো চয়েস আরেকবার বুঝিয়েছেন সর্বশেষ ম্যাচে। ৩ ওভার বল করে মাত্র ৯ রানে নিয়েছেন ৩ উইকেট। এই তিন বাদে বাকি বিদেশি অধিনায়ক মরগান, তাই এমন বিদেশিদের টপকে সাকিবের একাদশে সুযোগ পাওয়া খুব কঠিন।

চলতি আইপিএলে কেকেআরের বিদেশিদের পারফর্ম্যান্স কেমন?

৮ ম্যাচে তিন জয়ে পয়েন্ট টেবিলের ৫ নম্বরে আছে কলকাতা। দলের ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত পারফর্ম্যান্সও বেশ সুবিধার নয়, বিশেষ করে বিদেশিদের। এদের মধ্যে সর্বোচ্চ রান রাসেলের, ৮ ম্যাচে ২৭.১৬ গড়ে করেছেন ১৬৩। স্ট্রাইক রেট ১৫৫.২৩। তারপর বোলার প্যাট কামিন্স, ৭ ম্যাচে যার ৩১.০০ গড়ে করেছেন ৯৩ রান। এরপরের নামটি অধিনায়ক মরগান, ৮ ম্যাচে যার রান মাত্র ৯২! সাকিব ৩ ম্যাচে ৩৮ আর নারিন ৫ ম্যাচে করেছেন ১০ রান!

ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে না পারলেও কেকেআরের বোলাররা টুর্নামেন্টজুড়েই ভালো করছেন। বিদেশিদের মধ্যে ব্যাটিংয়ের মতো বল হাতেও রাসেলের দাপট। বিদেশিদের মধ্যে সর্বোচ্চ ১০ উইকেট তার। ব্যাটিংয়ের মতো বল হাতেও পরের নামটি কামিন্সের, তার শিকার ৯ উইকেট। এছাড়া নারিন ৩ উইকেট, সাকিব আর ফার্গুসন নিয়েছেন ২টি করে উইকেট।

কেকেআরের সম্ভাব্য একাদশ: শুভমন গিল, ভেঙ্কাটেশ আইয়ার, নিতীশ রানা, রাহুল ত্রিপাঠি, ইয়ন মরগান (অধিনায়ক), অ্যান্দ্রে রাসেল, দীনেশ কার্তিক, সুনিল নারিন, লোকি ফার্গুসন, বরুন চক্রবর্তী, প্রাসিধ কৃষ্ণা।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img