NCC Bank
- Advertisement -NCC Bank
১৬ আগস্ট ২০২২, মঙ্গলবার

সুনীল নারাইনকে কেন সাত নম্বরেই দেখতে চান শাহরিয়ার নাফীস?

- Advertisement -

বাংলাদেশের সাবেক-বর্তমান সকল ক্রিকেটার মিলিয়ে এইমুহুর্তে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সবচেয়ে সরব ব্যক্তিটির নাম শাহরিয়ার নাফীস। একসময়ের দেশবরেণ্য ওপেনার এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে কর্মরত, তবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে সাধারণ জনগণের সাথে চমৎকার যোগাযোগ রক্ষা করেন নাফীস। নিজের ভেরিফাইড অ্যাকাউন্ট থেকে নিয়মিত ক্রিকেটের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে পোস্ট করেন, নিজের মতামত ব্যক্ত করেন নাফীস। তাঁর পোস্টসমূহে ভক্তসমর্থকদের মন্তব্যে সয়লাব হয়ে যায়, নাফীস বেশ সুন্দরভাবে ধৈর্য্য ধরে সেগুলোর উত্তরও দেন।

এই শাহরিয়ার নাফীস মঙ্গলবার রাতে আইপিএলে দিল্লী ক্যাপিটালসের বিপক্ষে কলকাতা নাইট রাইডার্সের জয়ের পর ফেসবুকে বলেছেন, তিনি মনে করেন সুনীল নারাইনের সবসময় সাত নম্বরে ব্যাটিং করা উচিত। এই পোস্টের জন্য ভক্তদের প্রচুর দ্বিমতের সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাঁকে।

নিজের ভেরিফাইড অ্যাকাউন্ট থেকে এই স্ট্যাটাসটি দেন শাহরিয়ার নাফীস

 

দিল্লীর বিপক্ষে গতকাল সাত নম্বরে নেমে ১০ বলে ২১ রানের এক ঝড়ো ক্যামিও খেলেছেন সুনীল নারাইন। তিনি নামার পর কেকেআরের জয়ের জন্য লাগত ৩০ বলে ৩০ রান। কাগিসো রাবাদার করা পরের ওভারটিতেই চলে আসে ২১ রান; ১ চার ও ২ ছক্কাসহ যার ১৭ রানই নেন নারিন একাই। এরপর কেকেআরের জয়টা হয়ে যায় স্রেফ আনুষ্ঠানিকতা। এই ইনিংসের পরপরই নাফীস এই স্ট্যাটাস দেন।

ক্যারিয়ারের শুরুটা স্পিনার হিসেবে করলেও সুনীল নারাইন এখন ব্যাট হাতেও বেশ পটু। এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি দলগুলো তাঁকে মূলত ‘ফ্লোটার’ হিসেবে ব্যবহার করেন; অর্থাৎ ব্যাটিং অর্ডারে যেকোনো সময় দ্রুত রান তোলার কাজে ্নারাইনের ডাক পড়ে। এমনকি ওপেনার হিসেবেও নারাইনের বেশ নামডাক। তবে নাফীস মনে করেন নারাইনের সাত নম্বরেই ব্যাট করা উচিত। এমনকি কমেন্টবক্সে নাফীস এও লিখেছেন, যে তিনি মনে করেন সব ফরম্যাটেই ওপেনিং পজিশনে সবসময় একজন স্বীকৃত ওপেনারেরই ব্যাট করা উচিত।

নাফীসের এই পোস্ট আর কমেন্টের রিপ্লাই এখন তার ফলোয়ারদের বিরোধীতায় সয়লাব। অনেকেই মনে করেন ব্যাটসম্যানকে ফরম্যাট অনুযায়ী বিভিন্ন পজিশনে খেলানো উচিত, অনেকেই জস বাটলার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট শচীন টেন্ডুলকারদের উদাহরণ টেনে কমেন্ট করেছেন। তবে নাফীস এটারও উত্তর দিয়েছেন এই বলে যে, জস বাটলার একজন স্বীকৃত ব্যাটসম্যান, নারিন নন। যদিও এই কথায়ও তাঁর সাথে একমতের চেয়ে দ্বিমতকারীর সংখ্যাই বেশি।

যদিও শাহরিয়ার নাফীসের কথায় যুক্তি একেবারেই নেই, তা নয়। এই মৌসুমে আইপিএলের প্রথম কিস্তিতে সাকিব আল হাসানের বদলে নারাইনকে মিডল অর্ডারে ৪/৫ নম্বর পজিশনে খেলানো হয়েছিল। এমনকি গতবছরের আইপিএলে সাকিবের অনুপস্থিতিতেও নিয়মিত এই পজিশনে নেমেছেন নারাইন। খেলেছেন ওয়ান ডাউনেও, ওপেনও করেছেন। তবে রানের দেখা পাননি। এমনকি ১০ এর কোঠাও পেরিয়েছিলেন কালেভদ্রে। দিল্লীর বিপক্ষেই গত মৌসুমে ৩২ বলে ৬৪ ই গত তিন বছরে আইপিএলে সাত নম্বরের নিচে নারাইনের বলার মতো ব্যাটিং পারফরম্যান্স। যদিও আইপিএল বাদে অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে ওপেনিং বা মিডল অর্ডারে খেলে ভালোই করেন নারাইন।

Image
কেকেআরের হয়ে সুনীল নারাইন

কিন্তু শাহরিয়ার নাফীসের এই স্ট্যাটাসের তাৎপর্য আসলে কি? নিছক ক্রিকেটীয় দৃষ্টিকোণ থেকেই কি এই স্ট্যাটাস? নাকি নারাইনকে সাতে ঠেলে সাকিব আল হাসানকে পুনরায় কলকাতার ব্যাটিং লাইনআপে দেখার প্রত্যাশা? সেটা অবশ্য নাফীসই ভালো জানেন।

 

 

 

 

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img