২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, রবিবার

হংকংয়ে খেলতে না পারার কারণ জানালেন মেসি

- Advertisement -

গত ৪ ফেব্রুয়ারি হংকং একাদশের বিপক্ষে ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলেছে ইন্টার মিয়ামি। প্রাক মৌসুমের প্রস্তুতি এ ম্যাচে মাঠে নামার কথা ছিল লিওনেল মেসি। ম্যাচের বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই বিলবোর্ড-ব্যানার সবখানে মেসির ছবি দিয়ে প্রচারণা চালানো হয়েছিল। কিন্তু হংকং এফসির বিপক্ষে মেসিকে মাঠে নামাননি মিয়ামি কোচ।

তাতেই বেশ চটেছে ম্যাচ দেখতে আসা দর্শকরা। এ নিয়ে হংকংয়ের ক্রীড়া মন্ত্রী মুখ খুলেছেন। ম্যাচে অন্তুত মিয়ামি তারকার ৪৫ মিনিট খেলার কথা ছিল এমনটাই দাবি করেছেন তিনি। কেনো সেই ম্যাচ খেলতে পারেননি তা জানিয়েছেন মেসি।

বর্তমানে জাপানে অবস্থান করছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা। সেখানে ভিসেল কোবের বিপক্ষে ম্যাচ খেলবে ইন্টার মিয়ামি। তার আগে হংকংয়ে খেলতে না পারার বিষয়ে মেসি বলেন, “হংকং ম্যাচে আমার খেলতে না পারাটা দুর্ভাগ্য। সৌদি আরবে প্রথম ম্যাচ খেলার সময় আমি অ্যাডাক্টর পেশিতে (ঊরুর পেশি) অস্বস্তি অনুভব করি। এ কারণে আমি মাঠ থেকে উঠে যাই। (সৌদি আরবে) দ্বিতীয় ম্যাচে দেখতে চেয়েছিলাম কী রকম বোধ করি। কারণ, এমআরআই করানোর পর আমি জানতে পেরেছিলাম যে আমার অ্যাডাক্টর পেশিতে ফোলা আছে। কোনো চোট ছিল না বলে সেই ম্যাচে আমি খেলার চেষ্টা করেছি”

হংকং একাদশের বিপক্ষে খেলেননি মেসি

ফুটবলে এমনটা হতেই পারে বলে মনে করেন মেসি। যেকোনো খেলোয়াড়েরই চোট থাকতে পারে এটাও মনে করে দিয়েছেন তিনি।

মেসি বলেন, “হংকংয়ে আমরা উন্মুক্ত অনুশীলন করি এবং আমি সেই অনুশীলনে ছিলাম। কারণ, অনেক মানুষ সেখানে এসেছিল। এ ছাড়া শিশুদের নিয়েও একটা পর্ব ছিল। আমি সেখানে থাকতে চেয়েছি এবং অংশ নিতে চেয়েছি। কিন্তু সত্যি হচ্ছে, আমার (অ্যাডাক্টরে) অস্বস্তি ছিল এবং খেলাটা আমার জন্য কষ্টকরই ছিল। দুর্ভাগ্যজনকভাবে ফুটবলে এমন ঘটনা যেকোনো ম্যাচেই হতে পারে। আমাদের চোট থাকতে পারে। আমার ক্ষেত্রে এটাই হয়েছে”

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -

সর্বশেষ

- Advertisement -
- Advertisement -spot_img